এবার টিপ পরা ছবি ফেসবুকে দিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর প্রতিবাদ

এবার টিপ পরা ছবি ফেসবুকে দিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর প্রতিবাদ

 এবার সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকে টিপ পরা ছবি দিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। রবিবার (৪ এপ্রিল) শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে টিপ পরা কয়েকটি ছবি পোস্ট করেন। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন- আমি মানুষ, আমি মুসলমান, আমি বাঙালি, আমি নারী। তার এই স্ট্যাটাসের মন্তব্যের ঘরে অনেকেই ওই নারীকে হেনস্তা করার ঘটনায় শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে সুর মিলিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

ছবিতে একদিনে ৪৬ হাজার ফেসবুক ব্যবহারকারী রিয়েক্ট দিয়েছেন। মন্তব্য করেছেন ৯৬ জন। তাদের মধ্যে অনেকে মন্তব্য করে জানিয়েছেন প্রতিবাদ। তার পোস্টটি শেয়ার দিয়েছেন ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত জাতীয় কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সৌমিত্র শেখর।

শনিবার (২ এপ্রিল) রাজধানীর গ্রিন রোডের বাসা থেকে কলেজে যাওয়ার পথে উত্ত্যক্তের শিকার হন তেজগাঁও কলেজের থিয়েটার অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক ড. লতা সমাদ্দার। তিনি অভিযোগ করেন, কলেজে হেঁটে যাওয়ার সময় পাশ থেকে মধ্যবয়সী, লম্বা দাড়িওয়ালা একজন ‘টিপ পরছোস কেন’ বলেই বাজে গালি দেন তাকে।

ওই মধ্যবয়সী ব্যক্তির গায়ে পুলিশের পোশাক ছিল। তিনি আরো অভিযোগ করেন, ঘটনার প্রতিবাদ জানালে একপর্যায়ে তার পায়ের ওপর দিয়েই বাইক চালিয়ে চলে যান সেই ব্যক্তি। এতে তিনি আহত হন। পরে এ ঘটনায় শেরেবাংলানগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। এরপর শুরু হয় দেশব্যাপী প্রতিবাদ।

নারী-পুরুষ অনেকে টিপ পরে প্রতিবাদ জানায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। অনেকে সেলিব্রাটি, অভিনেতা-অভিনেত্রীও যোগ দেন এই আন্দোলনে। কর্মসূচী পালন হয় শাহবাগ-প্রাসক্লাবে।

এদিকে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যকে শনাক্ত করে তাকে পুলিশ হেফজতে নিয়েছে ডিবি। একই সঙ্গে নাজমুল তারেক নামের ওই পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্তও করা হয়েছে। সোমবার (৪ এপ্রিল) বিকেল ৫টায় ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন। একই সঙ্গে দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটিও করা হয়েছে। তাদেরকে তিন কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password