৪ মেয়ের কাঁধে তাই পিতার লাশ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে পুরো বিশ্বই যেন উলট-পালট হয়ে যাচ্ছে। রোগ আর মৃত্যুর ভয়ে বদলে বুঝি বদলে যাচ্ছে মানুষও। কমে যাচ্ছে বুঝি মানবিক বোধ। তাই বিশ্বের অনেক দেশেই নানা হৃদয়বিদারক ঘটনা ঘটছে, যার কোনো কোনটি যথেষ্ট অমানবিকও বটে। এমনই একটি মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে ভারতের আলিগড়ে। মৃত ব্যক্তির নাম সঞ্জয় কুমার। স্থানীয় সূত্রে খবর, আলিগড়ের নুমাইশ ময়দানের চা-হেলিংয়ের বাসিন্দা ছিলেন বছর ৪৫ এর সঞ্জয় কুমার। পেশা চা বিক্রেতা হলেও বেশ কিছুদিন ধরে যক্ষ্মা রোগে ভুগছিলেন তিনি। আতঙ্ক আর সামাজিক দূরত্বে অজুহাতে তাঁর মৃত্যুর পর সৎকারের কাজে এগিয়ে আসেনি কোনো প্রতিবেশি, কোনো স্বজনও। উপায় না দেখে বাবার শেষকৃত্যে এগিয়ে এল তাঁর চার কন্যা। তাঁরাই বাবার দেহ কাঁধে করে নিয়ে গেল শ্মশানে। তবে হাসপাতালের একজন কর্মী সঙ্গী হয়েছিলেন তাদের ওই শবযাত্রায়। সেখানেই তার শেষকৃত্য হয়। সঞ্জয়ের শেষকৃত্যে কেউ এগিয়ে না এলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চার কন্যার কাঁধে পিতার লাশ বহনের ছবি দেখে সমবেনদার যেন নদী বইয়ে যাচ্ছে। যদিও এই মেকি সমবেদনায় সঞ্জয়ের কন্যাদের আর কিছুই যায় আসে না।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন