কক্সবাজারে পর্যটকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সাত সিদ্ধান্ত

কক্সবাজারে পর্যটকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সাত সিদ্ধান্ত

মিসবাহ ইরান কক্সবাজার জেলা: আলোচিত গৃহবধূ ধর্ষককাণ্ডের পর এবার কক্সবাজারে যাওয়ার পর্যটকদের নিরাপত্তা ও সেবার মান বাড়াতে তৎপর হয়েছে জেলা প্রশাসন। এ লক্ষ্যে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় সাতটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

* সকল আবাসিক হোটেলে রুম বুকিং দেয়ার সময় জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদর্শন ও দাখিল করতে হবে। * আবাসিক হোটেলসমূহে অনুসরণীয় একটি অভিন্ন আদর্শ কর্মপদ্ধতি (এসওপি) প্রনয়ণ করা হবে।

* প্রতিটি হোটেলে কক্ষ সংখ্যা, মূল্য তালিকা ও খালি কক্ষের সংখ্যা সম্বলিত ইলেকট্রনিক ডিসপ্লে বোর্ড স্থাপন করতে হবে।

* পর্যটকদের সুবিধার্থে ডলফিন মোড়ে সুবিধাজনক স্থানে একটি তথ্যকেন্দ্র ও হেল্পডেস্ক স্থাপন করা হবে। * প্রতিটি আবাসিক হোটেলে নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থা চালু/জোরদার করতে হবে।

* হোটেল-মোটেল জোনে অবৈধ পার্কিং এবং সমাজ বিরোধীদের কর্মকান্ড বন্ধে অভিযান জোরদার করা হবে।

* হোটেল মোটেল মালিক সমিতি জেলা প্রশাসনের সহায়তায় তাদের কর্মকর্তা কর্মচারীদের জন্য প্রশিক্ষণের আয়োজন করবে। এছাড়া হোটেল-মোটেল জোনে অবৈধ পার্কিং এবং সমাজবিরোধীদের কর্মকাণ্ড বন্ধে অভিযান জোরদার করা হবে।

হোটেল মোটেল মালিক সমিতি জেলা প্রশাসনের সহায়তায় তাদের কর্মকর্তা কর্মচারীদের জন্য প্রশিক্ষণের আয়োজন করবে। শুক্রবার (২৪ ডিসেম্বর) বিকেলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের এটিএম জাফর আলম সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক মো: মামুনুর রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় গৃহিত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷অনুষ্ঠিত সভয় পুলিশ সুপার মো: হাসানুজ্জামান,

ট্যুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার মো: জিললুর রহমান, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, সহ-সভাপতি মো: রেজাউল করিম, কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি আবু তাহেরসহ পর্যটন শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password