খবর সংগ্রহকালে সাংবাদিককে মেরে কানের পর্দা ফাটিয়ে দিলেন

খবর সংগ্রহকালে সাংবাদিককে মেরে কানের পর্দা ফাটিয়ে দিলেন

রাজশাহীতে সংবাদ সংগ্রহের সময় দুই সংবাদকর্মীর উপর হামলা হয়েছে। সকাল সাড়ে ৮টায় নগরীর বর্ণালী এলাকায় বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অফিসে হামলার ঘটনা ঘটে। নতুন অফিস সময় মোতাবেক কর্মকর্তারা অফিসে প্রবেশ করছেন কিনা সেই সংবাদ সংগ্রহ করছিলেন এটিএন নিউজের রিপোর্টার বুলবুল হাবিব ও ক্যামেরাপারসন রুবেল ইসলাম।

এসময় প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক আব্দুর রশীদ সেখানে উপস্থিত হয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাধা দেন। অসৌজন্যমুলক আচরণের একপর্যায়ে কর্মচারিদের নিয়ে হামলা চালান। এতে গুরুতর আহত হন ক্যামেরাপারসন রুবেল ইসলাম। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মারধরের কারণে রুবেলের কানের পর্দা ফেটে গেছে। এঘটনায় সকালে বিক্ষোভ করেছে সাংবাদিক সংগঠনগুলো।

সংবাদ সংগ্রহের সময় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের হামলার শিকার হয়েছেন এটিএন নিউজের রিপোর্টার বুলবুল হাবিব ও ক্যামেরাপার্সন রুবেল ইসলাম। সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে লাইভ চলাকালে এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে এর প্রতিবাদে মানববন্ধন করেন সাংবাদিকরা।

হামলার শিকার বুলবুল হাবিব জানান, সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক সকাল ৮টায় অফিস শুরু হওয়ার কথা। সেই নির্দেশনা কতটুকু কার্যকর হয়েছে, সেটির খোঁজ-খবর নিতে সকালে তারা বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে (বিএমডিএ) যান। সকাল ৮টা ২০ মিনিটের দিকে বিএমডিএর নির্বাহী পরিচালক (ইডি) আবদুর রশিদ অফিসে প্রবেশ করেন। এর পরপরই তিনি সাংবাদিকদের ওপর চড়াও হন। বিনা অনুমতিতে কেন প্রবেশ করেছে এবং কেন ছবি তুলছে এই নিয়ে উত্তেজিত হয়ে ওঠেন তিনি।

বুলবুল আরও বলেন, একপর্যায়ে দ্বিতীয় তলায় তার দপ্তরে উঠে যান। কিছুক্ষণ পরে ৮ থেকে ১০ জন লোক আমাদের ঘিরে ধরে।এ সময় আমাদের ওপর এলোপাতাড়ি হামলা চালায় এবং ক্যামেরা ও এটিএন নিউজের বুম ভেঙে ফেলে। তাদের হামলায় আমার ক্যামেরাম্যান রুবেল গুরুতর আহত হয়। রুবেলের শক্ত কোনো কিছু দিয়ে তারা জোরে আঘাত করে। বর্তমানে তার অবস্থা গুরুতর।

এমন অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ৩৩নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হবে। সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় একাধিক বার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও বিএমডিএর নির্বাহী পরিচালক আবদুর রশিদ ফোন রিসিভ করেননি। এ সময় বিএমডির চেয়ারম্যান আখতার জাহানের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে অন্য একজন ফোন রিসিভ করে বলেন, ম্যাডাম ব্যস্ত আছেন বলেই, ফোনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password