মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার আবারও খুলছে

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার আবারও খুলছে

৩ বছর পর আবারও খুলছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার। রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) মালয়েশিয়ায় এ বিষয়ে সমঝোতা স্মারক সই হবে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ। আর এ মাসেই কর্মী পাঠানো শুরু হবে বলেও আশাবাদ তার।

শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) প্রবাসী কল্যাণ ভবনে সকালে আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব জানান তিনি। মন্ত্রী বলেন, গ্রিসে কর্মী পাঠানোয় সমঝোতা সই হবে আগামী ফেব্রুয়ারিতে। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেওয়া বন্ধ করে দিয়েছিল মালয়েশিয়া।

অনেক আলাপ-আলোচনার পর এ মাসের শুরুতে আবারও কর্মী নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান দেশটির মানবসম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী। শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী জানালেন, এজন্য সমঝোতা স্মারক সই হবে আগামী রবিবার। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমেদ বলেন, একবার এমওইউ (সমঝোতা স্মারক) সই হয়ে গেলে আমাদের অপারেশন কীভাবে হবে সেটা সর্ট আউট করতে খুব বেশি একটা সময় লাগবে না।

এ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আমরা যা কিছু প্রস্তাব করেছি, সেখানে সিন্ডিকেটের কোনো সুযোগ আমরা করে দিইনি।’এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল আরব আমিরাতসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে যেতে অতিরিক্ত বিমান ভাড়ার বিষয়ে। এ ব্যাপারে মন্ত্রী বলেন, “প্লেন ভাড়ার ব্যাপারে যেটা প্রশ্ন তোলেন, বিমানকে জিজ্ঞাস করেন ভাড়া এতো বেশি কেন? আমি তো চিল্লাতে চিল্লাতে আর চিঠি দিতে দিতে এই মুহূর্ত পর্যন্ত অপারগ।

গতকালও আমার সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী সাহেবের সঙ্গে দেখা হলো প্যারেড গ্রাউন্ডে। আমি উনাকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাস করলাম যে, কী হবে? উনি বললেন, ‘আমরা এটা নিয়ে বসছি’। আমি বললাম, ‘বসতে বসতে তো সিজন পার হয়ে যাবে’।” আর সরকারের পক্ষ থেকে নতুন বাজার খোঁজার চেষ্টা অব্যাহত আছে বলেও জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘আমরা আশা করছি ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে উই উইল হ্যাভ এ এমওইউ (সমঝোতা স্মারক)—এটা হলো গ্রিস। কোনো রিক্রুটিং এজেন্সি সৌদি আরবসহ যেকোনো দেশে কর্মী পাঠানোর ক্ষেত্রে সরকার নির্ধারিত টাকার চেয়ে বেশি নিলে মন্ত্রণালয়কে অবহিত করার পরামর্শ দেওয়া হয় সংবাদ সম্মেলনে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password