চীনের কঠোর হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্ট্রকে

যুক্তরাষ্ট্রকে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছে চীন। এক বিবৃতিতে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে কোনো একতরফা দাবি বেইজিং মেনে নেবে না। তিনি চীনের মৌলিক স্বার্থের প্রতি সত্যিকার সম্মান প্রদর্শন করতে মার্কিন সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

সোমবার চীনের গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাতে ওয়াং ই এ সতর্কবাণী উচ্চারণ করেন। সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন ও দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে নিজের সাম্প্রতিক সাক্ষাতের কথা উল্লেখ করে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এসব দেশ মনে করে চীনের উন্নতি দীর্ঘমেয়াদে এ অঞ্চলের সবগুলো দেশের স্বার্থ রক্ষা করবে; কাজেই তা বন্ধ করা যাবে না।

তিনি বলেন, এশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা মনে করেন করোনা মহামারি উত্তর যুগে চীন ও আমেরিকার মধ্যে আঞ্চলিক সহযোগিতা থাকা প্রয়োজন; সংঘর্ষ নয়।বিভিন্ন ইস্যুতে চীনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক অবস্থানে যাওয়ার যে প্রবণতা ওয়াশিংটন দেখাচ্ছে তার তীব্র সমালোচনা করে ওয়াং ই বলেন, আমেরিকা যেন একথা মনে না করে যে, আন্তর্জাতিক বিষয়ে তার কথাই শেষ কথা।

তিনি স্পষ্ট করে বলেন, চীনের সঙ্গে আলোচনা করতে আসলে আমেরিকার একতরফা দাবিগুলো মেনে নেয়া হবে না। চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তার দেশের সঙ্গে আলোচনার দরজা খোলা রয়েছে। তবে তা হতে হবে পারস্পরিক সম্মান ও সম অধিকারের ভিত্তিতে।সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শাসনামলে বেইজিংয়ের সঙ্গে ওয়াশিংটনের সম্পর্কে উত্তেজনা তুঙ্গে ওঠে। বাণিজ্য, দক্ষিণ চীন সাগর, তাইওয়ান, হংকং ও করোনাভাইরাস নিয়ে ট্রাম্প প্রশাসন চীনের সঙ্গে চরম সংঘাতপূর্ণ অবস্থানে চলে যান।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষমতা গ্রহণে করে চীনের ব্যাপারে ট্রাম্পের নীতি অনুসরণ করেন। বিভিন্ন ইস্যুতে বিশেষ করে মানবাধিকার ইস্যুতে চীনের সঙ্গে সংঘাতের পথে হাঁটার ইঙ্গিত দিয়েছেন জো বাইডেন।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন