নিউ জিল্যান্ড ভারতকে হোয়াইটওয়াশ করল

লোকেশ রাহুলের সেঞ্চুরিতে প্রায় তিনশ রানের সংগ্রহ গড়েও হোয়াইটওয়াশ এড়াতে পারল না ভারত। ব্যাটসম্যানদের মিলিত চেষ্টায় দুর্দান্ত জয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারের বদলা নিয়েছে নিউ জিল্যান্ড।মাউন্ট মঙ্গানুইয়ের বে ওভালে মঙ্গলবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে ৫ উইকেটে জিতেছে কিউরা। ১৭ বল হাতে রেখে ২৯৭ রানের লক্ষ্য ছাড়িয়ে গেছে কেন উইলিয়ামসনের দল।

টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৫-০ ব্যবধানে হারা নিউ জিল্যান্ড ওয়ানডে সিরিজ জিতে নিল ৩-০ ব্যবধানে।শতরানের উদ্বোধনী জুটিতে শুরুটা দারুণ করে নিউ জিল্যান্ড। ১০৬ রানের জুটি ভাঙে সপ্তদশ ওভারে। যুজবেন্দ্র চেহেলের স্পিনে বোল্ড হন ৪৬ বলে ৬ চার ও ৪ ছক্কায় ৬৬ রান করা মার্টিন গাপটিল।

দলে ফেরা অধিনায়ক উইলিয়ামসনকে নিয়ে অর্ধশত রানের জুটি গড়েন আরেক ওপেনার হেনরি নিকোলস। ৩০ রানের মধ্যে উইলিয়ামসন, রস টেইলর ও নিকোলসকে হারিয়ে চাপে পাড়ে যায় কিউরা।১০৩ বলে ৯ চারে ৮০ রান করেন নিকোলস। উইলিয়ামসন-টেইলর পারেননি ইনিংস বড় করতে। এক করে ছক্কা ও চারে ১৯ করে থামেন জেমস নিশাম।

২২০ রানে ৫ উইকেট হারানো নিউ জিল্যান্ড আর কোনো ক্ষতি ছাড়াই লক্ষ্য পৌঁছায় টম ল্যাথাম ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের দৃঢ়তায়। এসেই পাল্টা আক্রমণ শুরু করা ডি গ্র্যান্ডহোম ২১ বলে তুলে নেন ফিফটি। কিপার-ব্যাটসম্যান টম ল্যাথামকে নিয়ে ৪৮ বলে গড়েন অবিচ্ছিন্ন ৮০ রানের জুটি।

বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যাওয়া অলরাউন্ডার ডি গ্র্যান্ডহোম ২৮ বলে ছয় চার ও তিন ছক্কায় করেন ৫৮ রান। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৩৪ বলে ৩২ রানে অপরাজিত থাকেন ল্যাথাম।

৪৭ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ভারতের সেরা বোলার চেহেল। যেন ঝড় বয়ে গেছে শার্দুলের ঠাকুরের ওপর দিয়ে। ৯ ওভার ১ বলে ৮৭ রান দিয়ে পেয়েছেন ১ উইকেট।৫০ রান দিয়ে উইকেটশূন্য জাসপ্রিত বুমরাহ। পুরো সিরিজেই কোনো উইকেট পাননি এই পেসার।  চোট কাটিয়ে দলে ফেরার পর সবশেষ ছয় ওয়ানডেতে নিয়েছেন কেবল এক উইকেট।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৬২ রানে তৃতীয় উইকেট হারায় ভারত। অভিষেক ওয়ানডে সিরিজের তিন ম্যাচেই ব্যর্থ মায়াঙ্ক আগারওয়াল।থিতু হওয়ার আগেই সবচেয়ে বড় হুমকি বিরাট কোহলিকে থামান হামিশ বেনেট। ফিটনেস নিয়ে প্রশ্ন জাগিয়ে রান আউট হয়ে ফিরেন পৃথ্বী শ।

এরপর টানা দুটি শতরানের জুটিতে দলকে টানেন রাহুল। তার সঙ্গে ১০০ রানের জুটি গড়া শ্রেয়াশ আইয়ার ৯ চারে করেন ৬২ বলে ৬৩ রান। কেদার যাদবের পরিবর্তে দলে ফেরা মনিশ পান্ডে রাহুলের সঙ্গে উপহার দেন ১০৭ রানের জুটি।

শেষ দিকে বেনেটের দারুণ বোলিংয়ে তিনশ পেরুতে পারেনি ভারত।টানা দুই বলে রাহুল ও মনিশকে ফেরান বেনেট। প্রথম ম্যাচে অপরাজিত ৮৮ রান করা রাহুল এবার তুলে নেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ সেঞ্চুরি। লং অফে ক্যাচ দেওয়া রাহুল ১১৩ বলে ৯ চার ও ২ ছক্কায় করেন ১১২ রান। মনিশ করেন ৪৮ বলে ৪২।৬৪ রানে ৪ উইকেট নিয়ে বেনেটই নিউ জিল্যান্ডের সেরা বোলার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: ৫০ ওভারে ২৯৬/৭ (পৃথ্বী ৪০, মায়াঙ্ক ১, কোহলি ৯, শ্রেয়াস ৬২, রাহুল ১১২, মনিশ ৪২, জাদেজা ৮*, শার্দুল ৭, সাইনি ৮*; সাউদি ৯-০-৫৯-০, জেমিসন ১০-০-৫৩-১, বেনেট ১০-১-৬৪-৪, ডি গ্র্যান্ডহোম ৩-০-১০-০, স্যান্টনার ১০-০-৫৯-০)

নিউ জিল্যান্ড: ৪৭.১ ওভারে ৩০০/৫ (গাপটিল ৬৬, নিকোলস ৮০, উইলিয়ামসন ২২, টেইলর ১২, ল্যাথাম ৩২*, নিশাম ১৯, ডি গ্র্যান্ডহোম ৫৮*; বুমরাহ ১০-০-৫০-০, সাইনি ৮-০-৬৮-০, চেহেল ১০-১-৪৭-৩, শার্দুল ৯.১-০-৮৭-১, জাদেজা ১০-০-৪৫-১)

ফল: নিউ জিল্যান্ড ৫ উইকেটে জয়ী

সিরিজ: ৩ ম্যাচ সিরিজে নিউ জিল্যান্ড ৩-০ তে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: হেনরি নিকোলস

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন