পরীমনি কান্ডঃ কে এই নাসির ইউ মাহমুদ?

পরীমনি কান্ডঃ কে এই নাসির ইউ মাহমুদ?

বাংলাদেশ চলচিত্র অঙ্গণে আলোচনার ঝড় তোললেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। গতকাল রোববার সন্ধ্যা ৭টা ৫৩ মিনিটে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন পরীমনি, যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় চলছে।

পরে চিত্রনায়িকা পরীমনি ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার শিকার হওয়ার অভিযোগ তোলার পর সংবাদ সম্মেলনে এসে এক ব্যবসায়ীর নাম বলেছেন । রোববার রাতে এক ফেইসবুক পোস্টে অভিযোগ তোলার কয়েক ঘণ্টা পর ঢাকার গুলশানে নিজের বাড়িতে সংবাদ সম্মেলন করে ওই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন তিনি। এই অভিনেত্রী অভিযোগ করেছেন ঢাকা বোট ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য (বিনোদন ও সংস্কৃতি) নাসির ইউ মাহমুদের বিরুদ্ধে। ৪ দিন আগে উত্তরায় বোট ক্লাবে নাসির মাহমুদ তার উপর চড়াও হয়েছিলেন বলে অভিযোগ এই অভিনেত্রীর।

চিত্রনায়িকা পরীমনির অভিযোগের বিষয়ে নাসির ইউ মাহমুদের কোনো বক্তব্য তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি। তার একটি মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া গেছে। আরেকটি নম্বরে ফোন করলে তা ধরেন উত্তরা ক্লাবের এক কর্মচারী। তিনি বলেন যে এ বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না।

নাসির একজন আবাসন ব্যবসায়ী এবং ঢাকা বোট ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য । এছাড়াও তিনি ছিলেন উত্তরা ক্লাবেরও সাবেক সভাপতি । ঢাকা বোট ক্লাবের বর্তমান সভাপতি পুলিশ মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ। তার কাছে নালিশ দিতে গিয়ে সফল হননি বলে দাবি করেন পরীমনি। এ বিষয়ে পুলিশ প্রধান বেনজীর আহমেদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

তবে পরীমনির ফেইসবুক পোস্ট নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে পুলিশ হেডকোয়ার্টারের সহকারী মহাপরিদর্শক (মিডিয়া) সোহেল রানা বলেন, ‘পু‌লি‌শের সা‌থে যোগা‌যোগ কর‌লে অবশ্যই তার এ‌ (অভিযোগের) বিষ‌য়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হ‌বে। ত‌বে তি‌নি আইজিপি স্যা‌রের নাম কে‌ন উল্লেখ কর‌লেন, তা স্পষ্ট নয়। আইজি‌পি ম‌হোদ‌য়ের সা‌থে তি‌নি কো‌নো যোগা‌যোগ ক‌রেন‌নি।’

কে এই শিল্পপতি নাসির ইউ মাহমুদ ? পরিচয় কি :

পরপর দুই বছর ২০১৪ সালে এবং ২০১৫ সালে উত্তরা ক্লাবের সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেছেন শিল্পপতি নাসির ইউ মাহমুদ। নির্বাচনে নাসির ইউ মাহমুদ ৬৭২ ভোট পান। পেশায় তিনি ব্যবসায়ী। তিনি ঢাকা বোট ক্লাবের বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটির সঙ্গেও যুক্ত রয়েছেন। নিজস্ব আবাসন প্রকল্প ‘কুঞ্জ ডেভলপারর্স লি.’ এর চেয়ারম্যান তিনি। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা করেছেন। ওই সময়ে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের (এসএম হল) নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

তার স্ত্রী জীবিত রয়েছেন। তাদের সংসারে দু’টি ছেলে সন্তান রয়েছে। বড় ছেলে একই আবাসন প্রকল্পের ম্যানিজিং ডাইরেক্টর।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password