৫৪ জন নেতাকর্মীর মুক্তির দাবি সুপ্রিমকোর্ট ফটকে ডা. জাফরুল্লাহ

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরের বিরোধিতা করে আন্দোলনের ঘটনায় গ্রেফতার ছাত্র-যুব অধিকার সংরক্ষণ পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠনের ৫৪ নেতাকর্মীর মুক্তির দাবি জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

নেতাকর্মীর মুক্তির দাবিতে সোমবার (৩১ মে) প্রধান বিচারপতিকে স্মারকলিপি দিতে সুপ্রিম কোর্টে গেছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরসহ ছাত্র অধিকার ও যুব অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীরা।

তাদের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে সেখানে গেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকিও।  তবে তাদের সুপ্রিমকোর্টে প্রবেশ করতে দেয়নি পুলিশ।

ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর জানান, দুপুর সোয়া ১টার দিকে তারা সুপ্রিমকোর্টের ফটকে পৌঁছান।  স্মারকলিপি নিয়ে ভেতরে প্রবেশ করতে গেলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়।  একপর্যায়ে ফটক বন্ধ করে দেওয়া হয়।  পরে জাফরুল্লাহ চৌধুরী, জোনায়েদ সাকি ও নুরসহ নেতাকর্মীরা ফটকে অবস্থান নেন।  প্রায় এক ঘণ্টা সেখানে অবস্থান করলেও শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তাদের প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।

জানা গেছে, মোদিবিরোধী আন্দোলনে সহিংসতার ঘটনায় রাজধানীর শাহবাগ থানায় ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে।  এসব মামলায় ৫৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password