শিবপুরে হত্যার পর ডোবায় ফেলে দেওয়া যুবকের মরদেহ উদ্ধার

শিবপুরে হত্যার পর ডোবায় ফেলে দেওয়া যুবকের মরদেহ উদ্ধার

নরসিংদীর শিবপুরের কারারচরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক সংলগ্ন একটি পরিত্যক্ত ডোবা থেকে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার ৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে কারারচর এলাকার একটি প্লাস্টিক কারখানার সামনের ডোবা থেকে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত যুবক মো. হাশিবুল আলম (২২) সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার ডুমুরিয়া গ্রামের মৃত সোহরাব হোসাইনের ছেলে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ। স্হানীয় লোকজন ও পুলিশ জানান, সোমবার সকালে মহাসড়কে চলাচলরত পথচারীরা ডোবা সংলগ্ন স্থানটিতে ছোপ ছোপ রক্তের দাগ দেখতে পান। তারা কৌতুহলী হয়ে রক্তের উৎস খুঁজতে শুরু করেন। তারপরই ওই ডোবায় এক ব্যক্তির মরদেহ ভাসতে দেখা যায়।

পরে খবর পেয়ে দুপুরে শিবপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে। শিবপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মিনহাজ উদ্দিন জানান, নিহত যুবকের মাথায়, বুকে ও কোমরের ওপরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, এই স্থানেই তাকে হত্যার পর মরদেহ ওই ডোবায় ফেলে গেছে হত্যাকারীরা। তবে ঠিক কি কারণে তাকে হত্যা করা হল তা বুঝা যাচ্ছে না।

মরদেহ উদ্ধার শেষে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির পর নিহতের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। সঙ্গে থাকা জাতীয় পরিচয়পত্রটি তার কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছি আমরা। কি কারণে তাকে হত্যা করা হল, তা তদন্ত শেষে বিস্তারিত বলা যাবে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password