বিরল রোগ মাংকিপক্স ছড়িয়ে পড়ছে পশ্চিমা দেশগুলোতে

বিরল রোগ মাংকিপক্স ছড়িয়ে পড়ছে পশ্চিমা দেশগুলোতে

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, স্পেন ও পর্তুগালের মতো দেশগুলোতে ছড়িয়ে পড়ছে বিরল রোগ মাংকিপক্স। এসব দেশের স্বাস্থ্য বিভাগ ও স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে উঠে এসেছে এসব তথ্য। মার্কিন স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, এই রোগের সূত্রপাত সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত হওয়ার যায়নি। তবে সম্প্রতি কানাডা ভ্রমণের রেকর্ড রয়েছে আক্রান্ত রোগীর। মূলত, এই রোগে বেশি আক্রান্ত হয় আফ্রিকার বাসিন্দারা। বিভিন্ন গণমাধ্যম বলছে- চলতি মাসেই দেশগুলোতে মাংকিপক্স রোগী শনাক্ত হয়।

এর মধ্যে কানাডায় আক্রান্ত হয়েছে মোট ১৩ জন রোগী। এছাড়া পর্তুগালে পাঁচজন, স্পেনে সাতজন ও যুক্তরাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন নয়জন। খবর বিবিসির। এর জেরে ইউরোপ-আমেরিকায় জারি করা হয়েছে সতর্কতা। গেলো বছর, নাইজেরিয়া সফরের পর টেক্সাস এবং মেরিল্যান্ডে দুই জনের শরীরে শনাক্ত হয়েছিলো এই রোগ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, এই রোগে আক্রান্ত রোগী সাধারণত এক সপ্তাহের মধ্যেই সেরে উঠে। মৃত্যুহার সর্বোচ্চ প্রতি ১০ জনে ১ জন।

মাংকিপক্স রোগের প্রাথমিক উপসর্গ হচ্ছে জ্বর, মাথাব্যথা, হাড়ের জয়েন্ট এবং মাংসপেশিতে ব্যথা। এছাড়া দেহে আসতে পারে অবসাদ। এই জ্বর শুরু হওয়ার পর প্রথমে মুখে গুটি দেখা যায়। পরে তা ছড়িয়ে পড়ে সারা দেহে। এই গুটি রোগীর দেহে প্রচুর চুলকানির সৃষ্টি করে। পরে এই গুটি থেকেই দেখা যায় ক্ষত।

মন্তব্যসমূহ (০)