প্রথম ম্যাচের মতো সিরিজের শেষ ম্যাচেও জয় জিম্বাবুয়ের

প্রথম ম্যাচের মতো সিরিজের শেষ ম্যাচেও জয় জিম্বাবুয়ের

স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে জয় তুলে দারুণ কিছু করার ইঙ্গিত দিয়েছিল সফরকারী জিম্বাবুয়ে। এরপর টানা তিন ম্যাচ জিতে তাদের স্বপ্ন ভেঙে সিরিজ নিজেদের নামে করে নেয় স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড। সিরিজ হারার পর যেন হুশ ফিরেছে সফরকারীদের। সিরিজের প্রথম ম্যাচের মতো শেষ ম্যাচেও রুদ্ধশ্বাস শেষম্যাচে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডকে ৫ রানে হারাল তারা।

শেষ ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা জিম্বাবুয়ের শুরুটা হয় দুঃস্বপ্নের মতো। নিজের প্রথম ওভারেই মার্ক অ্যাডায়ার ধরেন জোড়া শিকার। টিনাশে কামুনহুকামউই শূন্য রানে ফেরেন অ্যান্ডি বালবার্নির দারুণ ক্যাচে। পরের বলেই এলবিডব্লিউ রেজিস চাকাভা। চাকাভার বিদায়ের পর বেশিক্ষণ টিকে থাকতে পারেননি মাধাভেরে৷ ২১ বলে ৯ রান করে জশ লিটলকে পুল করে ধরা পড়েন তিনি মিডউইকেটে। ৩৪ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর ডিয়ন মায়ার্সকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিন। দলীয় ৯৪ রানে মায়ার্সের (২৬) বিদায়ে ভাঙে তাদের ৫৭ রানের জুটি। মায়ার্স আউট হয়ে গেলেও ইনিংসের শেষ খেলে জিম্বাবুয়েকে সম্মানজনক পুঁজি এনে দেন ক্রেইগ আরভিন। ৫৭ বলে ৬৭ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। আরভিনের সাথে সুম্বা ১৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ১২৪ রান সংগ্রহ করে জিম্বাবুয়ে।

১২৫ রান তাড়া করতে নেমে বাজে শুরু করে স্বাগতিকরা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে তারা। প্রথম ৬ ওভারের মাঝেই আয়ারল্যান্ড হারিয়ে ফেলে ৪ উইকেট। এক পর্যায়ে মাত্র ৫১ রানেই ৫ হারায় আয়ারল্যান্ড। সেখান থেকে স্বাগতিকদের খেলায় রাখেন নিল রক ও শেন গেটকেট। এই দুজন মিলে ৩৬ রানের জুটির ফলে জয়ের স্বপ্ন দেখতে থাকে আয়রাল্যান্ড। তবে পুরো সিরিজ জুড়েই দারূণ বোলিং করা ওয়েলিংটন মাসাকাদজা ৮৭ রানের মাথায় শেন গেটকেটকে (১৫) বিদায় করে জিম্বাবুয়েকে খেলায় ফেরান। শেন গেটকেট আউট হয়ে যাবার পর উইকেটে টিকে থাকতে পারেননি নিল রক। তাকে ব্যাক্তিগত ২২ রানে সাজঘরে ফিয়েছেন লুক জঙ্গি। সেখানেই আয়ারল্যান্ডের জয়ের আশা শেষ হয়ে যায়।

শেষদিকে ক্রেইগ ইয়াং, মার্ক আদিররা চেষ্টা করেছেন কিন্ত দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যেতে পারেননি। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ১১৯ রান অলআউট হয়ে যায় স্বাগতিকরা। জিম্বাবুয়ের ৫ রানের জয় নিয়ে সিরিজ শেষ শেষ কজরে। শেষ ম্যাচে হারলেও সিরিজ ৩-২ ব্যাবধানে জিতে নিয়েছে আয়ারল্যান্ড। শেষ ম্যাচে ন্যাচ সেরার পুরষ্কার জিতেছেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক আরভিন আর সিরিজ সেরা হয়েছেন আয়ারল্যান্ডের ওপেনার পল স্টার্লিং।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password