কাঁদলেন, কাঁদালেন জাহিদ সরকার

কাঁদলেন, কাঁদালেন জাহিদ সরকার

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার বাঘাব ইউনিয়নে জনপ্রিয় নেতা জাহিদ সরকার উঠান বৈঠক করেছেন। রোববার (৫ ডিসেম্বর) বিকালে বাঘাব ইউনিয়নের কুন্দারপাড়া বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এ উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ঝিড়ি ঝিড়ি বৃষ্টি উপেক্ষা করে উঠান বৈঠকে মানুষের ঢল নামে।

এসময় জাহিদ সরকার বক্তব্য রাখতে গিয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন। তার কান্না জড়িত বক্তব্যে উপস্থিত জনগনও কেঁদে চোখের অশ্রু ঝড়ালেন। জাহিদ সরকার বলেন, আমার সাথে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। এই শিবপুরের মাটিতে আমার বাবা-ভাইকে হত্যা করা হয়েছে ষড়যন্ত্র করে। এখন ইউপি নির্বাচনে আমার সাথে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। তাই দলীয় মনোনয়ন পাইনি। ষড়যন্ত্র করে আমাকে রাজনীতি থেকে বিতারিত করার চেষ্টা করা হয়েছে।

তিনি আবেগে আপ্লুত হয়ে বলেন, আজ দুঃখে আমার বুকটি ফেটে যাচ্ছে। তাড়া আমার সাথে ষড়যন্ত্র করেছে। আমার বাবা নেই, ভাই নেই। আমার বাবা-মা, ভাই বোন এই বাঘাব ইউনিয়নবাসীরা। আজ থেকে বাঘাব বাসীই আমার অভিভাবক। আমি আপনাদের পাশে আছি থাকবো। আমার জীবনের শেষটুকু সময় আপনাদের পাশে থেকেই কাটাতে চাই।

তিনি আরো বলেন, আপনারা সকলে একেকজন জাহিদ সরকার হয়ে বুঝিয়ে দিবেন, বাঘাব ইউনিয়নে যোগ্য প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছে। শিবপুরে ত্যাগী নেতাদের মূল্যয়ান করা হয়নি। বাঘাবরে স্বজন প্রীতি হয়েছে। আপনারা দেখেছেন তৃণমূলের ত্যাগী নেতা বা যোগ্য নেতাকে নৌকা না দেয়ায় তৃতীয় লিঙ্গের একজন ব্যক্তিকে মানুষ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে। আমি আপনাদেরকে বলতে চাই, আমি আপনাদেরটাকা পয়সা কিছুই দিতে পারবো না। আমি কথা দিচ্ছি আমার জীবনের শেষটুকু বাঘাব ইউনিয়নবাসীর সেবা করে যাবো।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password