সরকারি-বেসরকারি অফিস করতে লাগবে টিকার সনদ

সরকারি-বেসরকারি অফিস করতে লাগবে টিকার সনদ

কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ থেকে সুরক্ষায় অফিস-আদালত করার ক্ষেত্রে নতুন নির্দেশনা জারি করেছে সরকার। শুক্রবার সকালে ছয় দফা জরুরি নির্দেশনা জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। নির্দেশনার মেয়াদ আপাতত ২১ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এতে বলা হয়েছে, সরকারি-বেসরকারি অফিস, শিল্প কারখানাসমূহে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবশ্যই করোনা টিকার সনদ নিতে হবে।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে দায়িত্ব বহন করবে। করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যে রাষ্ট্রীয়-সামাজিক অনুষ্ঠান ও জনসমাগম নিয়েও বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে সরকার। নির্দেশনায় জনসমাগম নিয়ে বলা হয়েছে— রাষ্ট্রীয়, সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ১০০ জনের বেশি মানুষ উপস্থিত থাকতে পারবে না।

এসব অনুষ্ঠানে যারা যোগ দেবেন, তাদের অবশ্যই ভ্যাকসিন সার্টিফিকেট বা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পিসিআর সার্টিফিকেট আনতে হবে। এছাড়া বাজার, মসজিদ, বাসস্ট্যান্ড, লঞ্চঘাট, রেলস্টেশনসহ সব ধরনের জনসমাবেশে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে বলা হয়েছে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিষয়ে নির্দেশনায় বলা হয়েছে, আজ থেকে ১৫ দিন সব স্কুল কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকবে। প্রসঙ্গত করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় কঠোর বিধিনিষেধের কথা সরকারের পক্ষ থেকে গত কয়েক দিন ধরেই বলা হচ্ছিল। মাস্ক ব্যবহার ও যানবাহনে চলাচল নিয়ে এরই মধ্যে ১১ দফা নির্দেশনা জারি করা আছে।

আজ আরও ৬টি নির্দেশনা যোগ হলো। দেশে প্রথম করোনা ধরা পড়েছে ২০২০ সালের ৮ মার্চ। এর ১০ দিন পর প্রথম মৃত্যু হয় কোভিডে। মাঝে কিছু দিন নিয়ন্ত্রণে থেকে সম্প্রতি সংক্রমণ আরও বেড়ে গেছে। এমতাবস্থায় নতুন নির্দেশনা জারি করল সরকার।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password