সাধারচর ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে জহিরুল হক ভূইঁয়াকেই চান এলাকাবাসী

সাধারচর ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে জহিরুল হক ভূইঁয়াকেই চান এলাকাবাসী

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার সাধারচর ইউনিয়নে ভইছে নির্বাচনী হাওয়া। ইতিমধ্যে প্রচার প্রচারণা শুরু করেছে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। দৌর ঝাপ শুরু করেছে নৌকার মনোনয়ন পেতে। হাট বাজারে চায়ের দোকানে চলছে তুমুল আলোচনা কে পাবে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক। কে হবে সাধারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।

এদিকে সাধারচর ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে, সাধারচর ইউনিয়নে জহিরুল হক ভূইয়াঁকেই চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় এলাকাবাসী। অন্যদিকে, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার মত যোগ্য প্রার্থী নেই বলে দাবি এলাকাবাসী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের। তবে তৃণমুল আওয়ামী লীগ থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের দুর্দীনের সময়ও আওয়ামী লীগে ছিলেন জহিরুল হক ভূইঁয়া। তাকেই নৌকা প্রতীকে দেখতে চায় এলাকাবাসী।

সাধারচর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও দুইবারের সফল ইউপি সদস্য জহিরুল হক ভূইঁয়া বলেন, আমি যদি এই শিবপুরে সধারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হতে পাড়ি, কর্মসৃজন কর্মসংস্থান প্রকল্পসহ গ্রামীণ অবকাঠামোগত সংস্কার উন্নয়ন অর্থ্যাৎ সকল রাস্তাঘাট পাকাকরণ, পুল কালবার্ড, ব্রীজ নির্মাণ, শিক্ষার মানোন্নয়ন, প্রতিযোগীতামূলক খেলাধুলার চর্চা,বাল্য বিবাহ বন্ধসহ নারী জাগরণে উদ্যোক্তা সৃষ্টি,বেকারদের কর্মসংস্থান, দূর্নীতিমুক্ত ইউনিয়ন পরিষদ গঠন, শতভাগ বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধী ভাতা বিতরণ, ধর্মীয় ও সাধারণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসার উন্নয়ন এবং সাধারচ ইউনিয়নকে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতির উন্নত, আধুনিক দৃশ্যমান ও মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলতে সক্ষম হব ইনশাল্লাহ।

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও দল যদি আমাকে আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন দান করেন, আমি আমার সাংগঠনিক কর্মদক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে নিষ্ঠার সাথে দল, এলাকা ও দেশের জন্য কাজ করব এবং তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রাখতে পারব বলে মনে করি এবং নির্বাচনে জয়ী হয়ে জনগণের আশা আকাঙ্খার প্রতিফলন গঠাবো।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password