সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সম্মানহানি জনগণ সইবে না

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সম্মানহানি জনগণ সইবে না

৩ বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সম্মানহানি দেশের সাধারণ মানুষ সহ্য করবে না বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন যুব জাগপা’র সভাপতি মীর আমির হোসেন আমু। আজ ২৩ মে ২০২২ সোমবার বিকালে ৪ টায় যুব জাগপা’র ঢাকা মহানগর নেতৃবৃন্দের সাথে দলীয় কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মীর আমির হোসেন আমু বলেন, সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতু থেকে খালেদা জিয়াকে ফেলে দেওয়ার বক্তব্যকে কোনো সভ্য দেশের মানুষ সহ্য করতে পারে না। দেশের মানুষ এমন বক্তব্যের জন্য এই সরকারকে ধিক্কার জানাচ্ছেন, নিন্দা জানাচ্ছেন। একটি সভ্য—গণতান্ত্রিক সমাজে এ ধরনের ভাষা ব্যবহার করা যায় না। কিন্তু তিনি করেছেন, তারা নিশি রাতের ভোটের সরকার তাই এখন খালেদা জিয়াকে নিয়ে সম্মানহানিমুলক কথা বলছেন।

তারা সময়ের আওয়াজ শুনতে পাচ্ছেন, ক্ষমতার দিন শেষ। মীর আমির হোসেন আমু আরো বলেন, পদ্মা সেতু আওয়ামী লীগের একার নয়। জনগণের কষ্টের টাকা দিয়ে পদ্মা সেতু হয়েছে। অথচ সেতুর বাড়তি টোলের কারণে জনগণ সেতুতে উঠতে ভয় পাচ্ছে। চারদিকে সেতুর টোল নিয়ে যখন সমালোচনার ঝড় উঠছে তখন আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ অত্যন্ত চাতুরতার সাথে সাধারণ মানুষের দৃষ্টি ঘোরাতে খালেদা জিয়া ও ড. ইউনুসের বিরুদ্ধে বিষোদগার শুরু করেছেন।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে তিনি বলেন, সরকার যাই ভাবুক নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া এই অবৈধ সরকারের অধীনে এদেশের মাটিতে আর কোন নির্বাচন যুব সমাজ হতে দেবে না। একটি অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য অগণিত মানুষ শহীদ ও পঙ্গু হয়েছে। হাজার হাজার নেতাকর্মী ফাঁসি, জেল—জুলুম ও গুম—খুনের শিকার হয়েছে। শত শত শহীদের রক্তের রাজপথে নেয়া হবে।

গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম চলছে—চলবে। সভায় উপস্থিত ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হাসান, আতিকুর রহমান, ঢাকা মহানগর উত্তর যুব নেতা আতিকুল ইসলাম আতিক, মাহমুদুল হক রাব্বী, শরিফ তালুকদার, ইকরাম চৌধুরী, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুব নেতা শরীফুল ইসলাম শরীফ, সোহেল খান, আশরাফ তালুকদার প্রমুখ।

মন্তব্যসমূহ (০)