নওগাঁয় প্রাথমিকের প্রশ্নফাঁস চক্রের মূল হোতাসহ সাতজন আটক

নওগাঁয় প্রাথমিকের প্রশ্নফাঁস চক্রের মূল হোতাসহ সাতজন আটক

নওগাঁয় জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) তথ্যের ভিত্তিতে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁস চক্রের মূল হোতাসহ সাতজনকে আটক করা হয়েছে। আজ শুক্রবার (৩ জুন) বিকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নওগাঁ শহরের বিএমসি মহিলা কলেজ কেন্দ্র থেকে চারজন, জনকল্যাণ মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে একজন, সেন্ট্রাল গার্লস স্কুল কেন্দ্র থেকে একজন ও পিএম উচ্চ বিদ্যালয় থেকে একজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে ৮টি মোবাইল, ইলেকট্রিক ডিভাইসসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে। পরীক্ষায় নানা অনিয়মের অভিযোগে ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে প্রশ্নফাঁস চক্রের বিষয়টি জানতে পেরে চক্রের মূল হোতা মো. মেহেদী হাসান, তার স্ত্রী কনা খাতুনসহ পরীক্ষার্থীদের উপর নজরদারি অব্যাহত রাখা হয়। এতে ওই চক্রের একজনকে আটক করা হলেও বাকিদের সুনির্দিষ্ট অবস্থান বের করতে না পারার কারণে তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি। আটক কনা খাতুনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এদিকে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নাহারুল ইসলাম ও সাবরিনা আক্তার স্বাক্ষরিত আরেক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ১৮৮ ধারায় ১৩ জনের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা হয়। দুজনকে ২০০ টাকা করে জরিমানা, দুজনকে ১০ দিনের, একজনকে ১৫ দিনের, একজনকে ২০ দিনের, বাকি ৭ জনকে ১ মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্যসমূহ (০)