দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা ছাত্রদলের

দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা ছাত্রদলের

ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক আজিজুল হক সোহেলের স্বাক্ষর করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আগামী ২৮ মে (শনিবার) দেশের সব জেলা-মহানগর ইউনিটে ও ২৯ মে (রবিবার) দেশের সব উপজেলা, থানা, পৌরসভা এবং কলেজে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের মিছিলে ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদে দুই দিনের বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ছাত্রদল।

গতকাল রাতেই এ ঘোষণা দেন তারা। ছাত্রদলের পূর্বঘোষিত কর্মসূচি ঘিরে গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের সঙ্গে আবারও সংঘর্ষ হয়। উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যাপক ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে শুরু হয়ে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে হাইকোর্ট মোড় পর্যন্ত।

দেশের সর্বোচ্চ বিচারাঙ্গন সুপ্রিম কোর্টের ভেতরেও আইনজীবী সমিতি ভবনের সামনে ছাত্রদল-ছাত্রলীগের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, মারামারি, ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদলের কর্মী নাহিদ চৌধুরীর অবস্থা গুরুতর। পরে তাকে অ্যাম্বুল্যান্সে করে কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। গতকাল বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মন্তব্যের প্রতিবাদে পূর্বঘোষিত কর্মসূচি পালন করতে সকাল থেকেই হাইকোর্ট এলাকার আশপাশে জড়ো হতে থাকেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

দুপুর ১২টার দিকে তারা মিছিল বের করেন। মিছিলটি হাইকোর্ট মোড় হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দোয়েল চত্বরের দিকে অগ্রসর হতে থাকে। এদিকে শিশু একাডেমি ও দোয়েল চত্বর এলকায় আগেই অবস্থান নিয়েছিলেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ছাত্রদলের মিছিলটি হাইকোর্টের মাজার গেট পেরিয়ে দোয়েল চত্বরের দিকে অগ্রসর হতে গেলে ছাত্রলীগের বাধার মুখে পড়ে। তখন উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। উভয় পক্ষের নেতাকর্মীদের হাতে লাঠিসোঁটা, হকিস্টিক ও রড দেখা যায়।

মন্তব্যসমূহ (০)