মাটির নিচ থেকে মিললো প্রাচীন রৌপ্য মুদ্রা

মাটির নিচ থেকে মিললো প্রাচীন রৌপ্য মুদ্রা

মাটির নিচ থেকে মিলেছে প্রায় ১০০টি রৌপ্য মুদ্রা। ওই এলাকায় একটি নির্মাণাধীন বাড়ির কাজে মাটি খুঁড়তে গিয়েই একটি ছোট মাটির পাত্র থেকে ব্রিটিশ আমলের ৯৮টি রৌপ্য মুদ্রা পান শ্রমিকেরা। পরে বাড়ির মালিক ও এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দিলে ওই মুদ্রাগুলো উদ্ধার করা হয়। সোমবার (৬ জুন) সকালে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে উপজেলার তারাবো পৌরসভার গন্ধর্বপুর তেতুলতলা গ্রামে ঘটেছে এ ঘটনা।

স্থানীয়রা জানান, তেতুলতলা গ্রামের বাসিন্দা তারা মিয়ার ছেলে আজাদ মিয়া তার উঠানে নতুন পাকা বাড়ি নির্মাণের জন্য ৪ জন মাটি কাটার শ্রমিক দিয়ে কাজ করাচ্ছিলেন। সকাল ৮টার দিকে মাটি থেকে মাত্র দেড় ফুট গভীরে কোদাল দিয়ে কোপ দিলে একটি পুরাতন মাটির পাত্র ভেঙে যায়। এ সময় ওই মাটির পাত্রের ভেতরে পুরাতন মুদ্রা দেখতে পায় শ্রমিকরা।

স্থানীয় কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম মনির জানান, আজাদ মিয়ার বাড়ির যেখানে এ মুদ্রা পাওয়া গেছে সেখানে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত পুরাতন একটি ঘর ছিল। সেই ঘরে ১৯৪৭ সালের দেশভাগের আগে থেকে মুড়াপাড়ার জমিদার বাবু জগদীশ চন্দ্র ব্যানার্জির নিয়োজিত নায়েব মবুল্লাহ প্রধান বাস করতেন।

সে সময় এ বাড়ির বসবাসকারীরা বর্তমানে প্রচলিত মাটির ব্যাংকের মতো ওই মুদ্রাগুলো জমিয়েছিলেন বলে মনে করেন তিনি। এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি এএফএম সায়েদ বলেন, মাটি খুঁড়ে পুরাতন মুদ্রা পাওয়া গেছে এমন খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ৯৮টি মুদ্রা উদ্ধার করা হয়েছে। এসব মুদ্রার মধ্যে ১৯০৬ এবং ১৯১৩ সালের ইন্ডিয়ান রুপি লেখা ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, এগুলো রৌপ্যমুদ্রা। এসব উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। পরবর্তী কালে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

মন্তব্যসমূহ (০)