নওগাঁর পত্নীতলায় রাতের আঁধারে দুর্বৃত্তের দেওয়া আগুনে এক দম্পতি আহত

নওগাঁর পত্নীতলায় রাতের আঁধারে দুর্বৃত্তের দেওয়া আগুনে এক দম্পতি আহত

নওগাঁর পত্নীতলার আমদাদপুর কমলাবাড়ী গ্রামে রাতের আঁধারে দুর্বৃত্তের দেওয়া আগুনে দগ্ধ হয়ে মারাত্মক আহত হয়েছেন এক দম্পতি। দুজনের অবস্থাই আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টার দিকে এই ঘটনাটি ঘটে। দগ্ধরা হলেন, ওই গ্রামের মৃত আমিরুলের ছেলে রিপন মিয়া (২৪) ও তার স্ত্রী হালিমা (২০) ওরফে মিষ্টি। স্থানীয়রা জানান, রিপন মিয়া ও তার স্ত্রী হালিমা প্রতিদিনের মতো রাতের খাবার শেষে ঘুমাতে যান।

এসময় বাড়ির পেছন থেকে ঘরের জানালা দিয়ে দুর্বৃত্তরা পেট্রোল মিশ্রিত আগুন ঘরের মধ্যে ছুঁড়ে মারে। আগুন মূহুর্তের মধ্যে ঘরে ছড়িয়ে পড়ে এবং শরীরে আগুন ধরলে স্বামী-স্ত্রীর চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তাদের উদ্ধার করে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন। চিকিৎসকরা অগ্নিদগ্ধদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.খালিদ সাইফুল্লাহ বলেন, অগ্নি দগ্ধ স্বামী-স্ত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের শরীরের ৭০ থেকে ৮০ ভাগ ঝলসে গেছে।

পত্নীতলা থানার ওসি শামসুল আলম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password