শিবির সন্দেহে গ্রেপ্তার জবির ১২ শিক্ষার্থী ৩ দিনের রিমান্ডে

শিবির সন্দেহে গ্রেপ্তার জবির ১২ শিক্ষার্থী ৩ দিনের রিমান্ডে

শিবির সন্দেহে গ্রেপ্তার রাজধানীর কোতোয়ালি থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের করা মামলায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ শিক্ষার্থীর তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। শুক্রবার ঢাকা মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলাম এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

শনিবার আদালত সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের আল-মামুন রিপন, ব্যবস্থাপনা বিভাগের মো. ফাহাদ হোসেন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের তৌহিদুর রহমান, লোকপ্রশাসন বিভাগের মো. মেহেদী হাসান (মাহদী), ইতিহাস বিভাগের ইসরাফিল হোসেন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ইব্রাহিম আলী, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের মেহেদী হাসান ও ওবাইদুল ইসলাম, মনোবিজ্ঞান বিভাগের আবদুর রহমান (অলি), হিসাববিজ্ঞান বিভাগের রওশন উল ফেরদৌস, বাংলা বিভাগের শ্রাবণ ইসলাম রাহাত, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের তৌহিদুর রহমান।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক বিল্লাল হোসাইন জনি আসামিদের আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের ১০ দিন করে রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তাদের তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, এসব আসামিসহ অজ্ঞাত ৪০-৫০ জন জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মী ও অঙ্গসংগঠনের সদস্যরা দেশের সার্বভৌমত্ব ক্ষতিগ্রস্ত, ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করা, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানো, সরকার পতনের দাবিতে বিভিন্ন ছোট ছোট প্ল্যাকার্ড, ফেস্টুন, ব্যানার হাতে নিয়ে সরকারবিরোধী স্লোগান দেয়। এ ছাড়া ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসকে কেন্দ্র করে দেশে অরাজকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বক্তব্য দিয়ে আসছিল। এ ঘটনায় ২১ জনের নাম উল্লেখ করে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন উপপরিদর্শক রুবেল খান।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password