বাবা মায়ের বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে কি বলল বিল গেটস কন্যা?

এযাবৎ কালের শ্রেষ্ট ধনী বিল গেটস হঠাত করে দীর্ঘ ২৭ বছরের সংসার ভেঙে দিয়ে সারা বিশ্ববাসীর কাছে নানা আলোচনা সমালোচনার পাত্র হয়েছেন। আজ তাদের একসঙ্গে পথচলা থেমে যাওয়ার ঘোষণায় অবাক বিশ্ববাসী। যদিও বিচ্ছেদের কারণ চেপে গেছেন বিল গেটস ও মেলিন্ডা উভয়েই।

তাদের ঘর আলো করে এসেছে তিন সন্তান। বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ স্বাভাবিকভাবেই প্রভাব ফেলছে তাদের জীবনে। বিচ্ছেদ ঘোষণার পর গেটস দম্পতির ২৫ বছর বয়সী কন্যা জেনিফার গেটস এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দিয়েছেন।

ওই পোস্টে বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস কন্যা জেনিফার গেটস বলেন, মা-বাবার বিচ্ছেদের ঘোষণার পরে পরিবারটি এখন কঠিন সময় পার করছে।

খবর রয়টার্সের তথ্যমতে জেনিফার গেটস ইনস্টাগ্রামে লিখেন, আমি এই মুহূর্তে আমার নিজের আবেগ পাশাপাশি আমার পরিবারের সদস্যদের কিভাবে সর্বোত্তমভাবে সামলে রাখা যায়, তা নিয়ে এখনো আমি কাজ করছি। এতে আমাকে সুযোগ ও সমর্থন দেওয়ায় আমি কৃতজ্ঞ।  

তিনি আরও লিখেছেন, এই বিষয়ে আমি ব্যক্তিগতভাবে কোনো মন্তব্য করতে চাই না। কিন্তু মনে রাখবেন, আপনাদের সহানুভূতিশীল বক্তব্য ও সমর্থন আমার কাছে অনেক বড় বিষয়। ব্যক্তিগত গোপনীয়তা রক্ষার ক্ষেত্রে আমাদের চাওয়া বুঝতে পারায় সবার প্রতি ধন্যবাদ। আমরা এখন আমাদের জীবনের পরবর্তী পর্যায় নিয়ে কাজ করব।

এই দম্পতির তিন সন্তানের মধ্যে সবার বড় জেনিফার। তার এক ভাই ২২ বছর বয়সী এবং ১৯ বছরের বোন ফোয়েব রয়েছে। তারা সবাই সিয়াটলে বড় হয়েছেন এবং পড়েছেন লেকসাইড হাইস্কুলে।

জেনিফার ২০১৮ সালে স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি থেকে জীববিজ্ঞানের ওপর স্নাতক পাস করেন। এরপর তিনি নিউইয়র্কের মাউন্ট সিনাইয়ের ইকাহন স্কুল অব মেডিসিনে ভর্তি হয়েছিলেন। বিভিন্ন দাতব্যকাজেও সংশ্লিষ্ট আছেন জেনিফার গেটস।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন