প্রেমিকার হাত কাটা দেখে গলায় ফাঁস দিলেন যুবক

প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে ঝগড়া হয়। এতে অভিমানে এক রুমে বসে ব্লেড দিয়ে হাত কাটার চেষ্টা করেন প্রেমিকা। এটি দেখে অন্য রুমে গিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন মিফতাহুর রহমান নামে এক যুবক।শনিবার বেলা ১১টায় নগরীর পাঠানটুলার নিকুঞ্জ আবাসিক এলাকা থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। হত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে পুলিশ তার প্রেমিকাকেও গ্রেফতার করেছে।

নিহত মিফতাহুর রহমান সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের কদমতলী গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে।সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার ওসি মো. সেলিম মিঞা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।তিনি জানান, পুলিশ মরদেহ উদ্ধারের সঙ্গে ঘটনাস্থলে থাকা এক তরুণীকেও আটক করেছে। ওই তরুণী সম্প্রতি মায়ের সঙ্গে সিলেট এলে মা তরুণীকে মিফতাহুরের কাছে রেখে যায়।

শুক্রবার রাতে প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে ঝগড়া হয়। এতে দুজন দুই রুমে চলে যায়। প্রেমিকা এক রুমে বসে ব্লেড দিয়ে হাত কাটার চেষ্টা করলে প্রেমিক অন্যরুমে গিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।মিফতাহুরের বাবা মতিউর রহমান বাদী হয়ে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে আটক তরুণীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন।

এদিকে নিহতের চাচা মুহিবুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থলে এক তরুণীকে পাওয়া গেছে। সে আমাদের জানিয়েছে যে, আমার ভাতিজার সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তবে বিয়ে হয়েছিল কিনা সেটি বলতে পারব না। মেয়েটির বাড়ি বাগেরহাটের ফকিরহাট থানা এলাকায়।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন