ভারতে পাড়ি জমানো পুলিশ সদস্যদের ফেরত চায় মিয়ানমার

চলমান সামরিক সরকারের নির্দেশ পালনে অস্বীকৃতি জানিয়ে আশ্রয়ের আশায় ভারতে পালিয়ে যাওয়া পুলিশ সদস্যদের ফেরত চেয়েছে মিয়ানমার। সম্প্রতি ওইসব পুলিশ সদস্য সপরিবারে তাদের দেশে আশ্রয় নিয়েছেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। খবর- বিবিসি।

এ বিষয়ে ভারতকে পাঠানো এক চিঠিতে মিয়ানমার ‘বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক অটুট রাখার জন্য’ ওইসব কর্মকর্তাকে ফেরত পাঠাতে বলেছে।

এর আগে, ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য মিজোরামের চাম্পাই এবং সারচিপ জেলার সীমান্ত দিয়ে দেশটিতে প্রবেশ করেন মিয়ানমারের ১৯ পুলিশ সদস্য।

স্পর্শকাতর ইস্যু হওয়ায় তাদের নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে তারা সবাই মিয়ানমার পুলিশের নিম্নপদস্থ সদস্য এবং ভারতে প্রবেশের সময় পুরোপুরি নিরস্ত্র ছিলেন বলে নিশ্চিত করা হয়েছে। মিয়ানমার থেকে আরও অনেকে সীমান্ত পেরিয়ে আসতে পারেন বলে ধারণা ভারতীয় কর্তৃপক্ষের। দেশ দুটির মধ্যে প্রায় ১ হাজার ৬৪৩ কিলোমিটার অভিন্ন স্থলসীমান্ত রয়েছে।

গত মাসে সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকেই উত্তাল অবস্থা বিরাজমান মিয়ানমারে। বিক্ষোভ দমাতে মরিয়া নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে অন্তত ৫৫ জন আন্দোলনকারী নিহত হয়েছেন।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এখনও বিক্ষোভকারীরা তাদের অবস্থানে অনড়। শনিবারও ইয়াঙ্গুনে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ টিয়ার শেল, রাবার বুলেট এবং স্টান গ্রেনেড নিক্ষেপ করেছে। তবে নতুন করে কোনো প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়নি।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থানের পরপরই মিয়ানমারের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, শ্রমিক, শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের পেশাজীবীরা কাজে ইস্তফা দিয়ে রাজপথে বিক্ষোভ শুরু করেন। শান্তিপূর্ণ এই বিক্ষোভ অত্যন্ত সহিংসভাবে দমনের চেষ্টা চালাচ্ছে সামরিক সরকার।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন