৯৯৯-এ কল, শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসাশিক্ষক আটক

‘জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯’ নম্বরে অভিযোগের পর সাত বছর বয়সী ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক মাদ্রাসাশিক্ষককে আটক করেছে কুমিল্লার নাঙ্গলকোট থানা পুলিশ। অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম বেলাল হোসেন (২৬)।মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) দুপুরে ৯৯৯-এর পরিদর্শক আনোয়ার সাত্তার সাংবাদিককে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গতকাল সোমবার রাত ৯টার দিকে ৯৯৯ নম্বরে একজন কলার কুমিল্লার নাঙ্গলকোট থেকে ফোন করেন। তিনি জানান, সেখানে সাত বছর বয়সী এক মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে এক শিক্ষক।

কলার আরও জানান, অসুস্থ হয়ে পড়া মাদ্রাসাছাত্রীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখান থেকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ স্থানীয়রা উত্তেজিত হয়ে বেলালকে আটকে রেখেছে।

৯৯৯ তাৎক্ষণিকভাবে কলারের সঙ্গে নাঙ্গলকোট থানার ডিউটি অফিসারের কথা বলিয়ে দেয়। খবর পেয়ে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

পরে নাঙ্গলকোট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আতিক ৯৯৯-কে ফোনে জানান, তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে ভুক্তভোগী শিশুকে চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন এবং ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক বেলাল হোসেনকে আটক করেন। এরপর তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করা হয়।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন