পরিবারের ৫ সদস্যের ওপর এসিড দেয়ার পর ঢাললেন নিজ শরীরে

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে উদ্ধার হলো এক পরিবারের এসিড দগ্ধ পাঁচ সদস্য। পাঁচ সদস্যের ওপর এসিড দেয়ার পর নিজ শরীরে এসিড নিক্ষেপের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে লালবাগ থানার পুলিশ।এ সময় পরিবারের এসিড দগ্ধ পাঁচ সদস্যকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) ভোর সাড়ে চারটায় ঢাকার লালবাগ এলাকার কাশ্মীরটোলা লেনের ১৫ নম্বর বাসা থেকে এক ব্যক্তি ৯৯৯-এ ফোন করে জানান, বাড়িটিতে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ঝগড়া ঝাটির জের ধরে এক ব্যক্তি কয়কজনের গায়ে এসিড ছুঁড়ে মেরেছে।

৯৯৯ থেকে সংবাদ পেয়ে লালবাগ থানার একটি পুলিশ দল দ্রুত ঘটনাস্থলে যায়।পরে লালবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফয়সাল জানান, পারিবারিক ঝগড়া বিবাদের এক পর্যায়ে অভিযুক্ত আলী হোসেন (৪০) তার পরিবারের পাঁচ সদস্যের ওপর এসিড নিক্ষেপ করে নিজের গায়ে এসিড ঢেলে দিয়েছেন।তারা সন্দেহ করছেন যে, হামলাকারী আলী হোসেন (৪০) মানসিকভাবে অসুস্থ এবং মাদকাসক্ত।অন্য আহতরা হলেন- আলীর মা মোমেনা বেগম (৭০), আনোয়ার হোসেন (৫২), ইকবাল হোসেন (৪৫), বোন জামিলা আক্তার (৩০) এবং ভাগ্নে সালেহীন (২০)।লালবাগ থানার এসআই ফয়সাল আরও জানান, স্থানীয় একটি ব্যাটারি দোকানের কর্মচারী আলী, তার পরিবারের সদস্যদের সাথে ঝগড়ায় লিপ্ত হওয়ার পরে তাদের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

তাদের সবাই প্রথমে চিকিৎসার জন্য শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়। আহতদের মধ্যে- জামিলা, ইকবাল ও সালেহীনকে তাদের চোখের মধ্যে এসিড দগ্ধ হওয়ায় জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর করা হয়েছে।আলীকে পুলিশ হেফাজতে বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে এবং তার মাকে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন