মুখে পেইন্টিং করে শপিংমলে ঘুরতে দেখা যায় এক নারীকে

ইন্দোনেশিয়ায় বালিতে মুখে পেইন্টিং করে এক রুশ নারীকে সুপার মার্কেটে ঘুরতে দেখা জায়। অন্যদের বোকা বানাতেই এমনটি করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। করোনার এই সময়ে মাস্ককে তুচ্ছজ্ঞান করে তা না পরে মুখে পেইন্টিং করায় রুশ এক নারী বিপাকে পড়েছেন।

রুশ ঐ নারী মুখে এমনভাবে পেইন্ট করেন, যা দেখলে মনে হয়, তিনি আসলে নীলরঙা মাস্ক পরে আছেন। পরে ঐ নারী ও তার পুরুষ সঙ্গীকে নিয়ে স্থানীয় একটি সুপার মার্কেটে ঘুরে বেড়ান। বিষয়টি নিয়ে অনেকের মধ্যে সন্দেহ দানা বাঁধলে তাদের ঘোরাঘুরির ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট হলে তা ভাইরাল হয়ে যায়। এ ঘটনায় উভয়ের পাসপোর্ট জব্ধ করে ইন্দোনেশিয়ার কর্তৃপক্ষ।

এই ঘটনায় জড়িত দুই জন হচ্ছেন তাইওয়ানের জোশ পালের লিন এবং রুশ নাগরিক লিয়া সে। ভিডিওতে দেখা গেছে, গাড়িতে বসে প্রথমে মুখে মাস্কের আদলে পেইন্ট করেন লিয়া। প্রথমে অন্যরা এমনকি সিকিউরিটি গার্ডও তার মুখে মাস্ক না থাকার বিষয়টি ধরতে ব্যর্থ হন।

পরে লালরঙা মাস্ক পরিহিত অন্য এক নারী বিষয়টি বুঝতে পারেন এবং জানতে চান লিয়ার মুখে মাস্কের মতো জিনিসটি কি আসলে পেইন্টিং? ভিডিওটি অনলাইনে ছড়িয়ে পড়লে লোকজন তাদের এমন কর্মকাণ্ডকে দায়িত্বজ্ঞানহীন ও বিপজ্জনক হিসেবে আখ্যায়িত করে। এক পর্যায়ে এটি ভাইরাল হয়ে পড়লে ইন্দোনেশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ নিশ্চিত করে যে, ঐ দুই জনের পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে এবং তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হতে পারে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন