সীমান্ত থেকে ৪ লাখ পিস ইয়াবা জব্দ

কক্সবাজার-মিয়ানমার সীমান্তের উখিয়া অংশ দিয়ে অনুপ্রবেশকালে ৪ লাখ পিস ইয়াবা জব্দ করেছে কক্সবাজার বিজিবির ৩৪ ব্যাটালিয়নের রেজুপাড়া বিওপি সদস্যরা। তবে এ সময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।বুধবার রাত ৯টার দিকে উখিয়ার রত্নাপালং ইউপির চাকবৈঠা চিকনপাতার বাগান নামক সীমান্ত স্থান থেকে এসব ইয়াবা জব্দ করা হয়।বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে গণমাধ্যমকে বিষিয়টি নিশ্চিত করেন ৩৪ ব্যাটালিয়ন কমান্ডার লে. কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ।

বিজিবি কর্মকর্তা জানান, কক্সবাজার ব্যাটালিয়ন (৩৪ বিজিবি) এর অধীনস্থ রেজুপাড়া বিওপি’র সদস্যরা গোপন সংবাদে জানতে পারেন কতিপয় ইয়াবা ব্যবসায়ী বিপুল পরিমাণ ইয়াবা নিয়ে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে রেজুপাড়া বিওপির একটি আভিযানিক দল উখিয়ার ২নং রত্নাপালং ইউপির চাকবৈঠা চিকনপাতার বাগান নামক স্থানে ফাঁদ পেতে থাকে।

রাত আনুমানিক রাত ৯টার দিকে ৮-১০ জন চোরাকারবারীকে সীমান্ত এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করতে দেখে বিজিবি টহল দল তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করে। চোরাকারবারীরা বিজিবি টহল দলকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ শুরু করে। বিজিবি টহল দল চোরাকারবারীদের লক্ষ্য করে ১৩ রাউন্ড পাল্টা গুলি করলে চোরাকারবারীরা তাদের সাথে থাকা লুঙ্গি দিয়ে মোড়ানো ব্যাগ ফেলে দ্রুত পাহাড়ি গহীন জঙ্গলের মধ্য দিয়ে মায়ানমারের দিকে পালিয়ে যায়।

এ সময় টহল দল উক্ত স্থান থেকে চোরাকারবারীদের ফেলে যাওয়া ব্যাগ তল্লাশি করে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা জব্দ করে। পরবর্তীতে তা গুণে ৪ লাখ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়।এ ব্যাপারে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।লে. কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ আরও জানান, কক্সবাজার ব্যাটালিয়ন (৩৪ বিজিবি) এর দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে অদ্যাবধি চোরাচালান ও মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ১৪ লাখ ২৯ হাজার ৯২৩ পিস ইয়াবাসহ ১০৭ জন আসামি আটক করেছে টহল দল।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন