নিজের থাকার ঘর করোনামুক্ত রাখুন ৩ উপায়েনিজের থাকার ঘর করোনামুক্ত রাখুন ৩ উপায়ে

 করোনার হাত থেকে মানুষকে বেশিরভাগ সময় বাড়িতে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেকেই নিজের সুরক্ষার জন্য মুখে মাস্ক পরছেন এবং হাত পরিষ্কার রাখার জন্য স্যানিটাইজার বা সাবান ব্যবহার করছেন।
তবে এত কিছুর পাশাপাশি করোনার ঝুঁকি থেকে বাঁচতে ঘরও পরিষ্কার রাখা জরুরি। যদি বাড়ির কোনও অসুস্থ ব্যক্তির কাশি এবং হাঁচিজনিত সমস্যা থাকে বা কোনও সংক্রামিত ব্যক্তি থাকে তবে তার দ্বারা স্পর্শ করা সমস্ত জিনিসই দূষিত হয়ে যাবে। কাশি এবং হাঁচি দেওয়ার সময় যদি সে মুখ না ঢাকে তবে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা দ্বিগুণ হয়ে যায়।
এমন পরিস্থিতিতে বাড়ির টেলিভিশন, রিমোট, রান্নাঘর, আলমারি, ফ্রিজ, সমস্ত দরজার হ্যান্ডল, কল, সুইচ বোর্ড, ফোন, চাদর, বালিশের কভার ইত্যাদি পরিষ্কার করার দিকে অতিরিক্ত মনোযোগ দেওয়া উচিত। ঘর পরিষ্কারের জন্য কিছু বিষয় অনুসরণ করতে পারেন। যেমন-
১. করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে ঘরে ফিনাইল এবং লিক্যুইড ব্লীচ (সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইট) ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য কিছুটা ব্লীচে পরিমাণমতো পানি দিয়ে দুই থেকে চার মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর গ্লাভস পরে যে জায়গাটি পরিষ্কার করতে চান সেখানে এটি ছড়িয়ে দিন। প্রায় ১৫ মিনিট অপেক্ষা করার পর, পরিষ্কার কাপড়ের সাহায্যে জায়গাটি মুছুন।
২. রান্নাঘরের থালা বাসন পরিষ্কার করতে গরম পানি ব্যবহার করতে পারেন। গরম পানি দিয়ে জীবাণু ধ্বংস করা সহজ হয়। রান্নাঘর ব্যবহৃত কাপড় গরম পানিতে পরিষ্কার করা উচিত। এটি সম্পূর্ণ শুকানোর পরে তা ব্যবহার করুন।
৩. বাড়িতে যদি কোনও ব্যক্তি অসুস্থ থাকে তবে তার কাপড়টি আলাদা করে ধোবেন। তার কাপড়গুলি ধুয়ে নেওয়ার পরে সেগুলি ডেটল পানিতে ভিজিয়ে তারপর তা শুকাতে পারেন। ঘরের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা শুরু করার আগে সবসময় মুখ, হাত এবং মাথা ঢেকে নিন। পরিষ্কার করার সময় আপনার চোখ, নাক এবং মুখে স্পর্শ করা এড়িয়ে চলুন। পরিষ্কারের জন্য যেকোনও কাপড় বা ফেলে দেওয়া কাপড় ব্যবহার করুন। কাজ শেষ হওয়ার পরে এগুলি ভাল করে ধুয়ে শুকিয়ে দিন। কাজ শেষে ভালো করে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। সূত্র : বোল্ড স্কাই

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন