নিয়ম মানতে অনিচ্ছুক অভিবাসীদের দরকারে বাংলাদেশ ফেরত পাঠাবো:মালেয়শীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিয়ম মানতে অনিচ্ছুক অভিবাসীদের দরকারে বাংলাদেশ ফেরত পাঠাবো:মালেয়শীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মালয়েশিয়ার পেনাং রাজ্যে মসজিদের বাইরে স্বাস্থ্যবিধি ভেঙে ঈদের নামাজ আদায়ের অভিযোগে মঙ্গলবার (২০ জুলাই) ৪৮ বাংলাদেশি ও ১ জন মালেয়শীয় নাগরিককে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৮টায় পেনাং রাজ্যের জুরু তামান পেলাংগি মসজিদে ১০০ মানুষকে জামাতে নামাজ আদায়ের জন্য প্রবেশের অনুমতি দেয় কর্তৃপক্ষ। এ সময় মসজিদে প্রবেশ করতে পারেননি এমন দুই শতাধিক মানুষ মসজিদের বাইরে ঈদের নামাজ আদায় করেন। যাদের অধিকাংশ বাংলাদেশী।

 সরকারের আইন ভেঙে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে নামাজ আদায়ের এ দৃশ্যের ভিডিও স্থানীয় একজন নাগরিক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোড করলে দ্রুতই তা ভাইরাল হয় সেটি নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হলে তা প্রশাসনের নজরে আসে। পরে প্রশাসনের চালানো অভিযানে আটক হয় প্রবাসী বাংলাদেশিরা। মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হামজা জয়নুদ্দিন কড়া নির্দেশনা দিয়ে জানান,আটককৃতদের কোনো ছাড় দেয়া হবে না। প্রয়োজনে এসব অভিবাসীদের দেশে ফেরত পাঠানো হবে বলেও তিনি হুঁশিয়ারি দেন।

উল্লেখ্য, মালয়েশিয়ায় করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আনতে দেশজুড়ে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নিয়মিত বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে প্রশাসন। এই পরিস্থিতিতে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে স্বাস্থ্যবিধি ভেঙে ঈদের নামাজ আদায়ের এ ঘটনায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে প্রবাসী বাংলাদেশিরা। অন্যদিকে আটক বাংলাদেশীদের ৫ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।এ ব্যপারে এ রিপোর্ট লিখা অবধি বাংলাদেশ দূতাবাস কোন প্রতিক্রিয়া জানায়নি..ইতিমধ্যে,সোশ্যাল মিডিয়ায় বাংলাদেশীদের নিয়ে মালেয়শিয়ানদের করা কটাক্ষ দেশটির বাংলাদেশী অভিবাসীদের জন্য হুমকীর কারন হিসেবে দাড়িয়েছে। এর প্রতিক্রিয়া স্বরুপ মালেয়শীয় অথোরিটি আবারো অভিবাসীদের ধর-পাকড়ে নামতে পারে বলেও খবর বেরিয়েছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password