কমলগঞ্জে আসামী গোলাম রাব্বানী তৈমুরের আত্মসমর্পন

আলোচিত সিএনজি অটোচালক জলিল হত্যা মামলার আসামী ভানুগাছ বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও যুবদল নেতা গোলাম রাব্বানী তৈমুর স্বেচ্ছায় আদালতে আত্মসমর্পণ করেছে। রোববার ৬ জুন দুপুর ২টায় মৌলভীবাজারের চিফ জুডিসিয়াল মাজিস্ট্রেট মোঃ আলী আহাসানের আদালতে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পর্ন করেছেন। পরে আদালত তাকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য যে, কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নের বড়চেগ এলাকায় গত ৪ মার্চ রাতে সিএনজি ফিলিং স্টেশনে গ্যাস নেয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনায় ছুরিকাঘাতে সিএনজি অটো চালক জলিল মিয়াকে ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনা ঘটেছিল। এ ঘটনার নিহতের বড় ভাই বাদী হয়ে কমলগঞ্জ থানায় ৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৬/৭ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা করেছিলেন। মৌলভীবাজার জেলার যুবদলের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম রাব্বানী তৈমুর হত্যা মামলায় দুই নম্বর আসামী করা হয়েছিল। এর আগে পুলিশ তৈমুরের বড় ভাই কমলগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর গোলাম মুগ্নি মুহিত ও আলম হোসেন নামে দুজনকে গ্রেফতার করেছিল।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password