মহেশখালী কালারমারছড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী জাকের হোছাইন

মহেশখালী কালারমারছড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী জাকের হোছাইন

মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের চিকনীপাড়া গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত ও আওয়ামী পরিবারের সন্তান মোহাম্মদ জাকের হোছাইন। তার পিতার নাম জনাব মরহুম আলহাজ্ব আব্দুল হক সাহেব। তিনি বঙ্গবন্ধুর একনিষ্ঠ সৈনিক ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক ছিলেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বর্তমান ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক জননেতা এড. সিরাজুল মোস্তফা ১৯৯৬ সালে কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসন থেকে নির্বাচনে দাঁড়ালে কালারমারছড়ায় অনবদ্য ভূমিকা রাখেন মরহুম আলহাজ্ব আব্দুল হক সাহেব। মোহাম্মদ জাকের হোছাইন ছাত্রলীগের সাবেক ত্যাগী ছাত্রনেতা ছিলেন।

বর্তমানে তিনি বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কক্সবাজার জেলার দপ্তর সম্পাদক ও কালারমারছড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ৫নং ওয়ার্ডের দপ্তর সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন। তিনি শৈশব থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে বেড়ে উঠেন। মহেশখালীর উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে রাজনৈতিক অঙ্গনের সু-পরিচিত মুখ এবং আর্দশ, নমনীয়, বিনয়ী অবস্থানের ব্যক্তিত্ব জনাব মোহাম্মদ জাকের হোছাইন। তিনি কালারমারছড়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০০০ সালে কৃতিত্বের সাথে এস.এস.সি পাশ করেন।

তারপর উচ্চশিক্ষা লাভের জন্য তিনি মহেশখালী ডিগ্রি কলেজে ভর্তি হলে পরিবারের হাল ধরায় আর পড়ালেখা করা সম্ভব হয়নি। তার পড়াশুনা ও ছাত্ররাজনীতির পাশাপাশি বিভিন্ন আন্দোলনের অসমাপ্ত নেতৃত্ব, ২০০১ সালের পর মামলার প্রতিহিংসার স্বীকার, ১/১১ এর দেশরত্ন শেখ হাসিনার মুক্তি আন্দোলনের সক্রীয় ভূমিকা, ২০০৬ সালের তত্বাবধায়ক সরকারের আন্দোলনসহ বিশেষ অবদান রেখে তিনি আজও রাজপথে রয়েছেন।

শিক্ষাজীবনে কালারমারছড়া উচ্চ বিদ্যালয় শাখার ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কালারমারছড়া ইউনিয়ন শাখার সাবেক প্রকাশনা সম্পাদক ছিলেন।বর্তমানে অত্র ইউনিয়নের তরুণ জনপ্রিয় চেয়ারম্যান জনাব তারেক বিন ওসমান শরীফের হাত ধরেই রাজনীতির ধারাবাহিকতা চলমান রেখেছেন।

তিনি করোনাকালীন সময়ে কালারমারছড়ার বিভিন্ন গ্রামে গরীব, অসহায় মানুষের পাশে থেকে সাহায্য সহযোগিতা করছেন। এছাড়াও তিনি যুবসমাজ, শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার মান উন্নয়ণে সাধ্যমত সহযোগিতা করে যাচ্ছে বলে সুনাম রয়েছে। এসব ধারাবাহিতার মধ্য দিয়ে তৃণমূলের মাঝে ভেসে উঠেছে মোহাম্মদ জাকের হোছাইনের নাম। সর্বস্তরের আপামর অবহেলিত জনগণ ও ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের সাথে এগিয়ে যেতে চান তিনি।

বর্তমানে তিনি মহেশখালী উপজেলার বৃহত্তর সামাজিক সংগঠন "আঁরা মধুখাইল্যা" এর সদস্য সচিব, চিকনীপাড়া তা'লিমুল কোরআন হেফজ্খানা ও এতিমখানার সাধারণ সম্পাদক, ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উৎযাপন কমিটি চিকনীপাড়ার উপদেষ্টা, চিকনীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য, চিকনীপাড়া ছাত্র এসোসিয়েশনের সাবেক সহ-সভাপতি, চিকনীপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ কমিটির সদস্য এবং ক্লিনিক কমিউনিটি সেন্টার চিকনীপাড়ার সদস্য হিসেবে জনস্বার্থে কাজ করে যাচ্ছেন।

এবিষয়ে তিনি বলেন- আগামীতে কালারমারছড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পেলে সবাইকে সাথে নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে এবং সাধারণ মানুষের উপকারের জন্য যা যা করণীয় সবকিছু করবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

তৃনমূলের একাধিক নেতাকর্মী জানান, মোহাম্মদ জাকের হোছাইনের মত যোগ্য লোক বাংলাদেশ যুবলীগের মত বৃহত্তর সংগঠনের দায়িত্ব দিলে নিঃসন্দেহে ইউনিয়নের সুনাম বৃদ্ধি পাবে। তাই আগামীতে তৃণমূলের জনবান্ধন নেতা মোহাম্মদ জাকের হোছাইনকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দেখতে চায় তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password