নওগাঁর মান্দায় ভ্রাম্যমান আদালতে তিন বখাটের কারাদণ্ড

নওগাঁর মান্দায় ভ্রাম্যমান আদালতে তিন বখাটের কারাদণ্ড

নওগাঁর মান্দা উপজেলায় বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে এক ছাত্রীকে ইভটিজিং করে জোরপূর্বকভাবে অটোরিক্সায় উঠিয়ে নেওয়ার চেষ্টাকালে তিন বখাটেকে আটক করেছে স্থানীয়রা।

আজ মঙ্গলবার (৭ জুন) বিকেলে উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা মেমোরিয়াল বালিকা বিদ্যালয়ের অদুরে এ ঘটনা ঘটে। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তাঁদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। আটককৃত বখাটেরা হলেন, উপজেলার বড়পই গ্রামের ওয়াজেদ আলীর ছেলে আকাশ হোসেন (১৯), কয়াপাড়া গ্রামের সাহাদৎ হোসেনের ছেলে রনি (১৯) ও একই এলাকার নুরুজ্জামানের ছেলে সোহান বাবু (২০)। এদের মধ্যে রনি ও সোহান বাবু সাতবাড়িয়া টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থী এবং আকাশ হোসেন একজন ভবঘুরে বখাটে ছেলে।

মুক্তিযোদ্ধা মেমোরিয়াল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আকরাম হোসেন জানান, বিদ্যালয় ছুটির পর শিক্ষার্থীরা বাড়ি ফেরার পথে কমিউনিটি ক্লিনিকের মোড়ে পৌঁছালে তিন বখাটে দশম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে ইভটিজিং করে সিএনজি চালিত অটোরিকশায় উঠানোর চেষ্টা করে। এসময় ছাত্রীদের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন তাঁদের আটক করেন। পরে তাঁদের বিদ্যালয় শিক্ষকদের কাছে সোপর্দ করেন স্থানীয়রা। বিষয়টি তাৎক্ষনিকভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু বাক্কার সিদ্দিককে অবহিত করা হয়। পরে ইউএনও ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাঁদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড প্রদান করেন।

এ ব্যাপারে মান্দা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আবু বাক্কার সিদ্দিক বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে আটক যুবকরা দোষ স্বীকার করায় আকাশ হোসেনকে ২০ দিন, রনি ও সোহান বাবুকে ৭ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। পরে তাদের মান্দা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মন্তব্যসমূহ (০)