নওগাঁর মহাদেবপুরে রহস্যজনক ভাবে এক সন্তানের জননীর মৃত্যু

নওগাঁর মহাদেবপুরে রহস্যজনক ভাবে এক সন্তানের জননীর মৃত্যু

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলায় এক সন্তানের জননীর রহস্যজনক মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী আল আমিন পলাতক রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১জুলাই) দুপুরে উপজেলা সদরের কাচারীপাড়া ভূমি অফিসের পাশে নদীর বাঁধ সংলগ্ন রবিউল আলম লিটনের বাড়িতে এই ঘটনাটি ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা য়ায়, সাপাহার গোলচত্তর এলাকার বকুলের ছেলে আল আমিন সপ্তাহ খানেক আগে আড়াই বছরের কন্যা সন্তান সহ পত্নীতলা উপজেলার খিরসিন গ্রামের হযরতে মেয়ে স্ত্রী শিউলি আক্তার (৩০) কে নিয়ে লিটনের বাড়িতে ভাড়া ওঠে। বৃহস্পতিবার (২১জুলাই) বেলা ৩টার দিকে শিশুটির কান্না শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে গেলে ঘরের দরজা তালাবদ্ধ দেখতে পায়। এ সময় তাদের সন্দেহ হলে পুলিশে খবর দেয়।

পুলিশ এসে দরজার তালা ভেঙে খাটের উপর শিউলি আক্তারের লাশ দেখতে পায়। সে সময় পাশে বসে শিশুটি কাঁদছিল। আল আমিন মহাদেবপুর বাজারে বিভিন্ন টেইর্লাসে দর্জির কাজ করত। স্থানীয়দের ধারণা পারিবারিক কলহের জের ধরে দুপুরের কোন এক সময় আল আমিন তার স্ত্রী শিউলিকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যার পর ঘর তালাবদ্ধ করে পালিয়ে যায়।

মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আজম উদ্দিন মহামুদ জানান, খবর পেয়ে প্রাথমিক সুরতহাল শেষে সন্ধ্যায় লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে এটি হত্যাকান্ড বলে মনে হচ্ছে। লাশের ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password