শিক্ষা অফিসারকে জেল থেকে বেরিয়ে হাতুড়িপেটা

শিক্ষা অফিসারকে জেল থেকে বেরিয়ে হাতুড়িপেটা

শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে নোয়াখালী পৌরসভার রশিদ কলোনির রিফাত ভবনের সামনে চাঁদাবাজির মামলায় হাজত খাটার পর জামিনে বেরিয়ে মামলার বাদী সদর উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আবদুর রবকে প্রকাশ্যে হাতুড়িপেটা করেছে আসামিরা। আহত আবদুর রব প্রথমে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। পরে নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে তিনি বাসায় চলে যান। বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

হামলার শিকার আবদুর রব জানান, বছরের শুরুতে রশিদ কলোনি এলাকায় তিনি একটি বাড়ি নির্মাণের কাজ শুরু করলে স্থানীয় ফজলে এলাহী ওরফে এলমান ও মৃত সুলতান আহমদের ছেলে বাবু আমার কাছে চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না পেয়ে তারা আমার বেশ কিছু নির্মাণসামগ্রী চুরি করে। এ ঘটনায় ২২ ফেব্রুয়ারি সুধারাম মডেল থানায় তাদের আসামি করে আমি চাঁদাবাজি ও চুরির মামলা করলে পুলিশ ফজলে এলাহীকে গ্রেফতার করে।

তিনি বলেন, কয়েক দিন আগে ফজলে এলাহী জামিনে ছাড়া পেয়ে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে ছেলেকে নিয়ে বাসায় ফেরার সময় ফজলে এলাহী ও বাবুসহ কয়েকজন যুবক আমার পথরোধ করে হাতুড়ি দিয়ে মাথায় আঘাত করে। আমি হাত দিয়ে প্রতিরোধ করতে গেলে আমার দুই হাত রক্তাক্ত জখম হয়। একপর্যায়ে মুসল্লিরা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় রাত সাড়ে ১১টার দিকে সুধারাম থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

মন্তব্যসমূহ (০)