ঢাকায় ২৩ লাখ মানুষকে দেয়া হবে কলেরার টিকা

ঢাকায় ২৩ লাখ মানুষকে দেয়া হবে কলেরার টিকা

ঢাকায় ২৩ লাখ মানুষকে দেয়া হবে কলেরার টিকা। কলেরার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হিসেবে চিহ্নিত রাজধানীর পাঁচটি স্থানে কলেরার টিকা দেওয়া হবে। এ জায়গাগুলো হলো, যাত্রাবাড়ি, দক্ষিণখান, মিরপুর, মোহাম্মদপুর, সবুজবাগ। ডায়রিয়া ও কলেরার প্রাদুর্ভাব রোধে ঢাকায় ২৩ লাখ মানুষকে কলেরার টিকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম বুধবার এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, এ বছর দেশে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। ডায়রিয়ায় চারটি মৃত্যুর তথ্য পেয়েছি। । ঢাকা ও ঢাকার আশেপাশের জেলাগুলোতে ডায়রিয়ার প্রকোপ বেশি।

তিনি জানান, একবছর বয়স থেকে প্রাপ্তবয়স্ক সব বয়সীরা কলেরার টিকা পাবেন। শুধু গর্ভবতী নারীদের টিকা দেওয়া হবে না। কলেরার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হিসেবে চিহ্নিত রাজধানীর পাঁচটি স্থানে কলেরার টিকা দেওয়া হবে। এ জায়গাগুলো হলো, যাত্রাবাড়ি, দক্ষিণখান, মিরপুর, মোহাম্মদপুর, সবুজবাগ।

মে মাসে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হবে, জুন মাসে দেওয়া হবে দ্বিতীয় ডোজ। নির্দিষ্ট কিছু এলাকায় কলেরার টিকা দেওয়া হবে, টিকা দিতে রেজিস্ট্রেশন করার প্রয়োজন হবে না। সারাদেশে কেন কলেরার টিকা দেওয়া হবে না এমন প্রশ্নের জবাবে নাজমুল ইসলাম বলেন, "কলেরার টিকার এখন খুব সংকট।

আমাদের এখানে প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ায় নাইজেরিয়ার বরাদ্দ থেকে টিকা নিয়ে আমাদের দেওয়া হয়েছে। অনিরাপদ পানি, সাপ্লাই লাইনে কিন্তু সমস্যার কারণে রাজধানী ঢাকার মধ্যে যাত্রাবাড়ি এলাকায় সবচেয়ে বেশি রোগী বলে উল্লেখ করেন তিনি। তবে, আইসিডিডিআর,বি বলছে ডায়রিয়ায় মৃত্যু হয়েছে ২৯ জনের।

এ প্রসঙ্গে নাজমুল ইসলাম বলেন, "আমাদের কাছে এখনো আনুষ্ঠানিক ভাবে সেই তথ্য হস্তান্তর করেনি আইসিডিডিআর,বি। করলে আমরা সেগুলো বিশ্লেষণ করে দেখবো। জনসাধারণকে বিশুদ্ধ পানি পানের এবং ডায়রিয়া হলে নিকটস্থ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যাওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password