শিবপুরে বাড়ির সীমানা ঘেষে গর্ত ও দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা ফেলার অভিযোগ

শিবপুরে বাড়ির সীমানা ঘেষে গর্ত ও দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা ফেলার অভিযোগ

শিবপুর প্রতিনিধি : নরসিংদীর শিবপুরে বাড়ির সীমানা ঘেষে গভীর গর্ত ও দুর্গন্ধযুক্ত বর্জ্য ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে যেকোন সময় নতুন দুই তলা বাড়ি ধসে পড়ার আশঙ্কা করছে প্রতিবেশীরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের কামরাবো উত্তর পাড়ায়। এ বিষয়টি নিয়ে চেয়ারম্যান বার বার শালিস করেও কোন প্রতিকার করতে না পারায় ভুক্তভোগীরা চরম বিপাকে পড়েছেন।

ভুক্তভোগী বিল্লাল মিয়ার অভিযোগ, প্রতিবেশী মৃত আব্দুলের ছেলে সুলতান নতুন তুই তলা বাড়ি ঘেষে গভীর গর্ত করে। এবং সেই গর্তে মুরগির ফার্মের দুর্গন্ধযুক্ত বর্জ্য ফেলে। ফলে বিল্লাল মিয়ার বাড়ি যেকোন সময় ধসে পড়ার আসঙ্কা প্রকাশ করছেন। পাশাপাশি দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা ফেলার কারণে এলাকার পরিবেশ দূষণ হচ্ছে। মশার উপদ্রব বেড়ে গেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। একাধিকবার শালিস করলেও কোন প্রতিকার পাননি। বাধা দিলে বিভিন্ন হুমকি ধমকি দেয় বলে জানান তিনি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, জয়নগর ইউনিয়নের কামরাবো উত্তর পাড়ার মৃত আব্দুল মান্নাফ মিয়ার ছেলে বিল্লাল মিয়ার দুই তলা বাড়ি বিল্ডিং ঘেষে গর্ত করেন প্রতিবেশী মৃত আব্দলের ছেলে সুলতান। গর্তে ময়লা আবর্জনা ফেলায় আশেপাশে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। ময়লা বর্জ্যওে পানিতে মশার উপদ্রব বাড়ছে।

এলাকাবাসীরা জানান, বসত বাড়ির পাশে বর্জ্য অপসারণে দুর্গন্ধে থাকতে সমস্যা হচ্ছে। মশার উপদ্রব বেড়েছে। এতে বিভিন্ন রোগ বালাইয়ের আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। এলাকাবাসী নিষেধ করলেও তা মানছে না।

এব্যাপারে অভিযুক্ত সুলতানের বক্তব্য নিতে বাড়িতে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। পরে একাধিকবার মোবাইলে কল করলেও রিসিভ করেননি।
এব্যাপারে জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাদিম সরকার বলেন, আমি একাধিকবার নিষেধ করেছি। তারপরও কথা শুনেননি। গর্ত বরাট করেনি। এখনো বসত বাড়ির পাশে ময়লা ফেলছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password