বাড়ি বাড়ি রাত কাটিয়ে চলছে তাঁদের জীবন

একমাত্র সম্বল ভিটেমাটি হারিয়েছেন অনেক আগেই। বাড়ি দেখানোর শর্তে দীর্ঘদিন ধরে খুপরি ঘর বানিয়ে বাস করে আসছিলেন এক প্রবাসীর জায়গায়।

সম্প্রতি ওই প্রবাসী তার জায়গা ফেরত নেওয়ায় মাথা গোঁজার ঠাইও পাচ্ছেন না ছাতকের কালারুকা ইউনিয়নের বলারপীরপুর (গন্ধবপুর) গ্রামের হতদরিদ্র হারিছ আলী ও পরিবারের সদস্যরা। 

বর্তমানে আত্মীয়-স্বজনের বাড়ি বাড়ি রাত কাটিয়ে চলছে তাদের জীবনযাপন। 'মুজিববর্ষে কেউ গৃহহীন থাকবে না' প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষণা জানতে পেরে ধরনা দিয়েছিলেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছে অজ্ঞাত কারণে সেখান থেকেও ফিরতে হয়েছে খালি হাতে।

ফলে বয়োবৃদ্ধ স্ত্রী আকলি বেগম, একমাত্র উপার্জনক্ষম দিনমজুর ছেলে গৌছ মিয়া ও এক স্কুল পড়ুয়া ছেলেকে নিয়ে যাযাবরের মতো দিন কাটছে সত্তরোর্ধ্ব হারিছ আলীর।

হারিছ আলী জানান, এতদিন আর্থিক টানপোড়নে থাকলেও মাথার ওপর ছাদ থাকায় পরিবার নিয়ে অন্তত বসবাসের উপযোগ্য একটি ঘর ছিল। সেটি হারিয়ে একেবারেই নিঃস্ব হয়েছেন তিনি।

এ ব্যাপারে ছাতক উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মামুনুর রহমান জানান, শিগগিরই উনাদের ব্যাপারে খোঁজ নেওয়া হবে এবং অবশ্যই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী তাদেরকে জায়গাসহ একটি ঘর উপহার দেওয়া হবে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন