ভারত ও নেপালে সেই কঙ্কাল পাচার হতো

ময়মনসিংহের সীমান্তবর্তী উপজেলা হালুয়াঘাট। গারো পাহাড়ের পাদদেশে ঘেরা এ উপজেলা চোরাচালানকারীদের জন্যও এখন নিরাপদ রুট। আর এ পথেই পাচার হতো মানব দেহের পূর্ণাঙ্গ কঙ্কাল। গত রবিবারও অবৈধভাবে ভারতে মানবদেহের বিভিন্ন অংশাবশেষ পাচারের পরিকল্পনা ছিল একটি চক্রের।

মানব দেহের ১২ মাথার খুলি ও দুই বস্তা হাড়গোড় নিয়ে ময়মনসিংহ নগরীর আর.কে.মিশন রোডের ‘আশানীড়’ নামের একটি ভবন থেকে বাপ্পি নামে এক যুবককে গ্রেফতারের পর এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য বের হয়ে আসে। শুধু ভারতেই নয়, এসব কঙ্কাল ভারত হয়ে চলে যেতো নেপালেও। তবে সবকিছু পাচারের জন্য গোছগাছ থাকলেও সেই পরিকল্পনা ভেস্তে দিয়েছে পুলিশ।

আটক বাপ্পির বরাত দিয়েই গণমাধ্যমকে এসব জানিয়েছেন কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার। তিনি জানান, রবিবার রাতে বাপ্পির সাথে শাকিল নামে আরেকজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ৩-৪ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। গোটা চক্রটিকে আটকে পুলিশের অভিযান চলছে।

ওসি আরও জানান, জেলার বিভিন্ন কবরস্থান থেকে লাশ চুরি করে বাপ্পির কাছে পাঠাতো লাশ চোর চক্রের সদস্যরা। পরে রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার করে নিজের বাসায়ই কঙ্কাল রাখত বাপ্পি। সেখান থেকে বিক্রি করা হতো দেশের বিভিন্ন স্থানে।

অভিযানে থাকা নগরীর তিন নম্বর ফাঁড়ির এসআই রাশেদুল ইসলাম জানান, বস্তা ও কার্টনভর্তি মানুষের মাথার খুলি ও হাড় দেখে আমরা অবাক হই। কার্টন থেকে একে একে বের হয় ১২টি মাথার খুলি ও দুই বস্তা হাড়। সেই সঙ্গে পাওয়া যায় রাসায়নিক দ্রব্য। যা দিয়ে মানবদেহ দ্রুত পচানো ও কঙ্কাল প্রক্রিয়াজাত করা হতো।

ওসি তদন্ত ফারুক হোসেন জানান, সোমবার দুপুরে আসামি বাপ্পিকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে তোলা হবে।

জেলার পুলিশ সুপার মোহা. আহমার উজ্জামান জানান, দেশের মধ্যে সে এসব কঙ্কাল বিক্রি করতো বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে। আর সীমান্ত দিয়ে পাশের দেশে পাচারের বিষয়ে অভিযোগ উঠেছে। বিজ্ঞ আদালত রিমান্ড মঞ্জুর করলে এ বিষয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের পরিচালক (অপারেশন) লে. কর্নেল ফয়জুর রহমান বলেন, দেশের ৪ হাজার ৪’শ ২৭ কিলোমিটারে আমাদের সীমাবদ্ধতা রয়েছে। এরপরও আমরা সার্বক্ষণিক নজরদারিতে রাখার চেষ্টা করছি। তবে অনেক সীমান্তেই চোরাচালান হচ্ছে যা অস্বীকার করার সুযোগ নেই। আর হালুয়াঘাট সীমান্ত দিয়ে কঙ্কাল পাচারের বিষয়টি এখনো আমাদের আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়নি।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন