ভাইয়ের ঘরে বোনের ঝুলন্ত লাশ

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলায় এক শিশু শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার কলাবাধা এলাকায় বড় ভাইয়ের ঘর থেকে ওই শিশুর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত শিশুর নাম ফাতেমা আক্তার (১২)। সে কালিয়াকৈর উপজেলার কলাবাধা এলাকার আব্দুল করিমের মেয়ে। ফাতেমা স্থানীয় হলি মডেল স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।

এলাকাবাসী জানান, আব্দুল করিম কলাবাধা এলাকায় তার পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছেন। করিম ও তার স্ত্রী লিপি আক্তার স্থানীয় কারখানায় চাকরি করেন। তারা কারখানা থেকে বাসায় ফিরে দেখেন তার ছেলের ঘরের দরজা-জানালা বন্ধ। অনেক ডাকাডাকি করলেও ভেতর থেকে কোনো সাড়াশব্দ পাওয়া যায়নি।

এতে সন্দেহ হলে তারা ঘরের দরজার সিটকানি ভেঙে ভেতরে ঢুকে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় তার মেয়ে ফাতেমার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে। শিশু ফাতেমা তার বড় ভাইয়ের ঘরে গিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে কেউ বলতে পারছে না।

কালিয়াকৈর থানাধীন মৌচাক ফাঁড়ির ইনচার্জ মনিরুজ্জামান জানান, ওই শিশুর মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। তবে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন