ধ্বংসস্তূপেই ফিলিস্তিনি শিশুর র‌্যাপ গান (ভিডিও)

বছরের পর বছর ধরে দখলদার ইসরায়েলি বাহিনীর হামলায় প্রাণ হারাচ্ছেন ফিলিস্তিনের সাধারণ মানুষ। তবে গত এক সপ্তাহে ইসরায়েলের বর্বরোচিত বোমা হামলায় ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে ফিলিস্তিনের গাজা অঞ্চল। 

প্রতিদিনই বাড়ছে আহত-নিহতের সংখ্যা। নিহতদের একটি বড় অংশ নারী ও শিশু। সিয়াম সাধনার মাস রমজান কিংবা ঈদের দিনও বন্ধ থাকেনি ইসরায়েলি হামলা।

বিশ্বের অনিরাপদ শহর গাজা যেন ধ্বংসস্তুপ আর মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে। আর সেই ধ্বংসস্তুপেই মৃত্যুর দুয়ারে বসে যেন স্বর্গের হাসি হাসলেন ফিলিস্তিনি এক শিশু। অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকাটিতে বেঁচে থাকার অভিজ্ঞতা নিয়ে র‌্যাপ গাইতে দেখা গেছে এক ফিলিস্তিনি শিশুকে। ধ্বংসস্তূপে মৃত্যুর মুখে গাওয়া সেই গান সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ভাইরাল হয়েছে।

তুরস্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ড থেকে ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। 

বিশ্বের নানা প্রান্তের মানুষ ভিডিওটি শেয়ার করে ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি জানাচ্ছেন। পাশাপাশি বিভিন্ন পেজ এবং ইউটিউব থেকেও ভিডিওটি ব্যাপকভাবে ছড়িয়েছে। শিশুর গানের প্রশংসার পাশাপাশি নিরপরাধ ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি ভালোবাসা দেখিয়েছেন বিশ্বের নানা প্রান্তের মানুষ।

বিভিন্ন ধর্মগ্রন্থ থেকে বাণী উদ্ধৃত করে ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি জানিয়েছে বিভিন্ন ধর্মের মানুষ। স্ট্যান্ড উইথ ফিলিস্তিন, ফ্রি ফিলিস্তিন, স্টপ ওয়ারসহ বিভিন্ন হ্যাশট্যাগে সংহতি জানাচ্ছেন মানুষ। শিশুটির গানের মাধ্যমে স্বাধীন ফিলিস্তিন এবং যুদ্ধ-হামলা বন্ধের আহ্বান জানানো হয়েছে।

হামাসের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, এই হত্যাকাণ্ড ‘পূর্বপরিকল্পিত’। অন্যদিকে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু গাজায় পূর্ণশক্তিতে হামলা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, গত এক সপ্তাহে গাজায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯২ জনে। এরমধ্যে শিশু ৫৮জন। আহত হয়েছেন কয়েক হাজার। আর হামাসের রকেট হামলায় ইসরাইলে এখন পর্যন্ত ১০ জন নিহত হয়েছে।

র‌্যাপ গানটি শুনুন -

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password