মান্দার চৌবাড়িয়া নতুন গরুহাটের মাঠ ভরাটের কাজ পরিদর্শন

বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের দ্বিতীয় বৃহত্তম নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার চৌবাড়িয়া নতুন গরু হাটের জন্য সরকারি ভাবে নেওয়া হয়েছে ১২ বিঘা জমি। সেখানে মান্দা ১নংভারশোঁ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান সুমনের নেতৃত্বে মাঠ ভরাটের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে। এই কাজটি উপজেলা পরিষদ ও ইউনিয়ন হাটবাজার উন্নয়ন তহবিলের অর্থায়নে কাজটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এই কাজটি সম্পন্ন করতে প্রয়োজন হচ্ছে  ৫০ লাখ টাকা। প্রথমত ২০ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়ে মাঠ ভরাটের কাজ শুরু করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার কাজটি পরিদর্শন করেন ভারশোঁ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান সুমন। এ হাটের কোন নিজস্ব যাইগা না থাকায় চৌবাড়িয়া কলেজ মাঠে বৃহত্তম এ গরু হাটে বেচাকেনা চলে আসছিল। হাটের অবস্থান তিনটি উপজেলার মধ্যেই পড়তো। নওগাঁর মান্দা, নিয়ামতপুর এবং রাজশাহীর তানোর উপজেলার সীমান্ত ঘেঁষা হওয়ায় মাঝে মধ্যেই জটিলতার সৃষ্টি হয়।

বিষয়টি নিরসনের লক্ষে দীর্ঘদিন ধরে কর্ম পরিকল্পনা শুরু করে ইউপি চেয়ারম্যান সুমন ও মান্দা উপজেলা প্রশাসন।  এরই ধারাবাহিকতায় হাটসংলগ্ন উত্তরপাশে ১২ বিঘা জমি চৌবাড়িয়া হাটের নামে নেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হয়েছে ৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। এডিবি, উপজেলা পরিষদ ও হাটবাজার উন্নয়ন তহবিল থেকে এ অর্থ যোগান দেওয়া হয়েছে।

ইতোমধ্যে জমির মালিকদের পাওনা পরিশোধের পর শুরু করা হয়েছে মাটি ভরাটের কাজ। ১৩তারিখ হাট পরিদর্শনে এসে এ প্রসঙ্গে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এমদাদুল হক মোল্লা বলেন, তিন উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় চৌবাড়িয়া কলেজ মাঠে হাটটির অবস্থান হওয়ায় বিভিন্ন সময় জটিলতার সৃষ্টি হত। এ জটিলতা নিরসনের লক্ষে জমি অধিগ্রহণের পর সেখানে মাটি ভরাটের কাজ শুরু করেছে। মাটি ভরাটের কাজ শেষ হলে খুব শিঘ্রই নতুন স্থানে হাটটি স্থানান্তর করা হবে। 

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন