সাকিবের চাওয়াকেই সমর্থন ডোমিঙ্গোর

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের (আইপিএল) ১৪তম আসরে খেলার জন্য এপ্রিলে শ্রীলঙ্কা সফর থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। এরপর তা নিয়ে নানামুখী আলোচনা চারিদিকে। আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে টেস্টের কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে সাকিবের বাদ যাওয়ার গুঞ্জনও শোনা গেছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) অবশ্য জানিয়েছে ক্রিকেটারদের ইচ্ছা জেনেই ফরমেট অনুসারে কেন্দ্রীয় চুক্তি তৈরি হবে। এবার বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো সাকিবের সিদ্ধান্তকে সম্মান ও সমর্থন জানিয়ে দাবি করলেন তিনি কোন কোন ফরমেটে খেলবেন তা নিয়ে আরও আলোচনা করতে হবে।

এবার আইপিএল মাঠে গড়ানোর কথা এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহে। ওই সময় বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কা সফরে ২ টেস্টের সিরিজ রয়েছে যা আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্ভূক্ত। তবে বাঁহাতি অলরাউন্ডার সাকিব সিরিজটি না খেলার জন্য ছুটি নিয়েছেন বিসিবি থেকে। ওই সময় তিনি আইপিএলে পুরো সময় থাকতে চান। বিষয়টি নিয়ে প্রধান কোচ ডোমিঙ্গোর মনোভাব বেশ ইতিবাচক। তিনি মনে করেন ক্রিকেটারদের নেওয়া সিদ্ধান্তকে সবার সম্মান জানানো উচিত।

সাকিব ইস্যুতে ডোমিঙ্গো পুরোপুরিই ইতিবাচক। তিনি বলেছেন,‘আমি মনে করি, এই সিদ্ধান্তটা তাকে নিতেই হতো। সে বিভিন্ন মহল থেকে মতামত নিতে পারে, তবে এটা একান্তই সাকিবের সিদ্ধান্ত। কোচ হিসেবে আমি তার সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই। এটা তার ক্যারিয়ার এবং জীবিকা নির্বাহের উপায়, তাই এই বিষয়ে মতামত জানানোর মতো আমরা কেউ নই।’

অবশ্য সাকিবের মতো খেলোয়াড়কে সব কোচই দলে চাইবে। ডোমিঙ্গোও সবসময় তাকে চান। কারণ বাঁহাতি এ অলরাউন্ডারকে বলা হয়ে থাকে একের ভেতরে দুই- ব্যাট হাতে যেমন দুর্দান্ত তিনি, তেমনি বল হাতেও দারুন। ডোমিঙ্গো বললেন,‘কোচ হিসেবে আমি সবসময় সাকিবকে দলে পেতে চাইব। তবে অন্যদিকে, যদি খেলোয়াড় সম্পূর্ণভাবে এর ভেতরে না থাকে এবং ক্যারিয়ারের এমন পর্যায়ে এসে অন্য কোথাও সুযোগ থাকে- তাহলে তার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে মন্তব্য করা কঠিন।’

আর এ কারণেই ডোমিঙ্গো মনে করেন সাকিবের সঙ্গে আরও আলোচনা হওয়া প্রয়োজন। কারণ আধুনিক ক্রিকেটে কাউকে জোর করে খেলানোর সুযোগ নেই বলে মনে করেন তিনি। তিনি বলেছেন,‘আমি জানি বাংলাদেশের হয়ে খেলার সময় সে সম্পূর্ণ প্রতিশ্রুতিবদ্ধই থাকে। কোন কোন ফরমেটে সাকিব খেলবে, সেই আলোচনা আরও সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া দরকার। যেভাবে ক্রিকেট এখন চলছে, কাউকে এখন জোর করে খেলানোর সুযোগ নেই। বোর্ড এবং ক্রিকেটাররা যে সিদ্ধান্ত নেবে, সেই সিদ্ধান্তকে আমাদের সম্মান জানাতে হবে।’

উল্লেখ্য, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি চতুর্দশ আইপিএলের নিলাম থেকে ৩ কোটি ২০ লাখ রূপি ব্যয়ে সাকিবকে দলে নেয় তার পুরনো দল কলকাতা নাইট রাইডার্স। শ্রীলঙ্কা সফর ছাড়াও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি২০ সিরিজে দেখা যাবে না তাঁকে। মূলত সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতেই কিউইদের বিপক্ষে সিরিজ থেকে ছুটি নেন তিনি। আর আইপিএলের জন্য ছুটি নেন শ্রীলঙ্কা সফর থেকে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন