হবিগঞ্জে শিক্ষকের বিরুদ্ধে কলেজছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ সরকারি কলেজের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। যৌন হয়রানির শিকার ছাত্রী অধ্যক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগ ওঠা ওই শিক্ষক কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের (এডিশন)  প্রভাষক মো. খালিকুজ্জামান।

অভিযোগে জানা যায়, নবীগঞ্জ সরকারি কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক মো. খালিকুজ্জামান প্রতিষ্ঠানটির এক ছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে যৌন হয়রানিমূলক কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। কিন্তু তাতে সে সম্মতি না দেয়ায় ইনকোর্সে কম নাম্বার দিবেন বলে হুমকি দেন। তাই বাধ্য হয়ে ওই ছাত্রী অধ্যক্ষ বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

প্রায় ৭-৮ বছর পূর্বেও প্রভাষক মো. খালিকুজ্জামানের বিরুদ্ধে একই ধরনের অভিযোগ উঠেছিল বলে কলেজের একটি সূত্রে জানা যায়। পরে একটি প্রভাবশালী মহলের মাধ্যমে বিষয়টি রফাদফা করা হয়।

নবীগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. সফর আলী জানান, রোববার এক ছাত্রী কয়েকজন শিক্ষকের সামনে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়ে যায়। অভিযোগটি যাচাই-বাছাই করে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অভিযুক্ত প্রভাষক মো. খালিকুজ্জামান জানান, অধ্যক্ষ ও কয়েকজন শিক্ষকের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। এ মামলায় আমি একজন সাক্ষী। তাই তারা আমার বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও কলেজের গভর্নিং কমিটির সভাপতি শেখ মহিউদ্দিন বলেন, এক ছাত্রী অধ্যক্ষ বরাবর সমাজবিজ্ঞানের প্রভাষক মো. খালিকুজ্জামানের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ দিয়েছে। বিষয়টি শুনে সোমবার আমি কলেজে যাই। অধ্যক্ষ এবং একজন মহিলা শিক্ষককে দায়িত্ব দিয়ে এসেছি ছাত্রীটির সঙ্গে বিস্তারিত আলাপ করতে। তারা এসে আমাকে রিপোর্ট দিলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন