জেলের মধ্যেই মহিলাকে গণধর্ষণ ৫ উর্দিধারীর

ভয়াবহ! ন্যক্কারজনক! রক্ষকই যেখানে ভক্ষক! খুনের মামলায় অভিযুক্ত এক মহিলাকে টানা ১০ দিন ধরে জেল হেফাজতে গণধর্ষণ। পৈশাচিক কাণ্ডের অভিযোগ উঠেছে পাঁচ কারারক্ষীর বিরুদ্ধে। মধ্যপ্রদেশের ঘটনায় তোলপাড় গোটা রাজ্য।

খবরে প্রকাশ, গত মে মাসে রেওয়া জেলার মঙ্গওয়ানের কারাগারে এই নারকীয় কাণ্ড ঘটানো হয়েছে। কিন্তু, বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে ১০ অক্টোবর যখন বছর কুড়ির ওই মহিলার সঙ্গে দেখা করতে জেলে যান আইনি পরামর্শদাতা দল। সেই সময় মহিলা গোটা ঘটনার কথা ওই দলকে জানান।

এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসতেই নড়চড়ে বসেছে মধ্যপ্রদেশ প্রশাসন। উচ্চপর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। জেলা পুলিশ সুপার রাকেশ সিংহ জানিয়েছেন, মহিলা অভিযোগ করেন, মে মাসের ৯ থেকে ২১ তারিখের মধ্যে তাঁর ওপর নির্যাতন চালানো হয়েছে। তবে, পুলিশ রেকর্ড বলছে, ২১ মে তাঁকে এক বন্ধুর সঙ্গে ধরা হয়েছে।

পুলিশ সুপার আরও জানান, নির্যাতিতাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল কেন তিনি এতদিন বিষয়টি জানাননি? উত্তরে তিনি বলেন, ওয়ার্ডেনকে তিনমাস আগে বলেছিলেন। এমনকী, যে পুলিশকর্মীরা ওই পাশবিক অত্যাচার চালিয়েছিল, তাদের চিহ্নিতও করেছিলেন। মহিলা জানান, জেলের মধ্যে ওই পুলিশকর্মীরা ছিল, তাই তিনি প্রচণ্ড ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন।

পুলিশ সুপার যোগ করেন, মহিলা তাঁকে বলেছেন, ওই ঘটনার কথা কাউকে জানালে তাঁর বাবাকে হত্যামামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়া হবে বলেও পুলিশকর্মীরা হুমকি দিয়েছিল। মহিলা যে ওই ঘটনার কথা তাঁকে জানিয়েছিলেন, তা স্বীকার করেন জেলের ওয়ার্ডেন। মহিলার বয়ান নথিভুক্ত করেন অতিরিক্ত জেলা বিচারক।

 

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন