মাদারীপুরে এক প্রবাসীর ভুলের খেসারত দিচ্ছে ২০ পরিবার

হোম কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশনা অমান্য করেই চলেছেন মাদারীপুরের প্রবাসীরা। ইতালি থেকে ফেরা এমনই একজনের ভুলের খেসারত দিচ্ছে ২০ পরিবার। আইসোলেশনে রাখা হয়েছে তার পরিবারের চারজনকে। কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে আরো ১৯ জনকে।

দেশে ফিরেই হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা। অথচ সে নির্দেশনা মানেননি মাদারীপুরের শিবচরের ইতালি ফেরত এ ব্যক্তি। ফলাফল যা হওয়ার তাই, একজনের ভুলের খেসারত দিচ্ছে আইসোলেশনে থাকা পরিবারের বাকি চার সদস্য। একইসঙ্গে মেয়ের সংস্পর্শে আসা ১৯ সহপাঠী আছে হোম কোয়ারেন্টাইনে।

ওই প্রবাসীর মেয়ের এক সহপাঠীর বাড়িশিবচরের ইউএনও মো. আসাদুজ্জামান জানান, করোনাভাইরাসের আশঙ্কা থেকেই ওই প্রবাসীর পরিবারের চার সদস্যকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। ওই প্রবাসীর শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থাকলে তার মেয়ে ও মেয়ের সহপাঠীদের মধ্যেও সংক্রমণের সম্ভাবন থাকবে। এ কারণে মেয়েটির ১৯ জন সহপাঠীকেও হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশনা অমান্য করে এভাবেই গায়ে হাওয়া লাগিয়ে বেড়াচ্ছেন মাদারীপুরের অনেক প্রবাসী।জেলা সিভিল সার্জন ডা. শফিকুল ইসলাম জানান, নির্দেশনা অমান্য করা প্রবাসীদের কঠোর নজরদারিতে রাখার জন্য মাঠ পর্যায়ের স্বাস্থ্যকর্মীদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।মাদারীপুরের ডিসি ওয়াহিদুল ইসলাম জানান, যেসব প্রবাসী স্বাস্থ্য বিভাগ কিংবা কোয়ারেন্টাইনের বিধান অমান্য করবেন তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন