কিছু জরুরী উপদেশ ও নছিহত-স্বামী স্ত্রীর জন্য

★যে ঘরে স্বামী ও স্ত্রী এক সাথে তাহাজ্জুদ এর
নামায পড়বে, সে ঘরে জীবনে কোনো দিন অশান্তি
হবেনা”– বুখারী ও মুসলিম।☆
★”যে স্বামী তার স্ত্রীকে এক লোকমা ভাত খাইয়ে দিবে,
আল্লাহ ঐ স্বামীর ছগীরা গুনাহগুলো মাফ করে দিবেন এবং যে স্ত্রী তার স্বামীকে এক লোকমা ভাত খাইয়ে দিবে
আল্লাহ ঐ স্ত্রীর ছগীরা গুনাহগুলো মাফ করে দিবেন এবং প্রতি লোকমার বিনিময়ে ১০০০ নেকি উভয়ের আমলনামায় দান করবেন।
— মুসলিম শরীফ.☆
★ যে ঘরে স্বামী ও স্ত্রী একই প্লেটে খাবার খাবে যতক্ষণ খাবার খেতে থাকবে ততক্ষণ তাদের আমলনামায় সওয়াব লিখা হয়।
— তিরমিজি।☆
★ স্বামী ও স্ত্রী যখন একই বিছানায় শয়ন করে বা বসে অথবা
গল্প করে অথবা হাসি খুশি কথা বলে তখন প্রতিটা মিনিটে এবং সামী স্ত্রীর প্রতিটা কথাতে প্রতিটা সেকেন্ডে তাদের আমল নামায় ১০ টা করে
নেকি লিখা হয়।
__আবু দাউদ ( স্বামী স্ত্রী অধ্যায়)☆
★যে স্ত্রী তার স্বামীকে সকালে ঘুম থেকে জাগিয়ে পবিত্র করে ফজরের সালাতে মসজিদে পাঠিয়ে দেয়,
ঐ স্ত্রীর প্রতি স্বামীর অন্তরে আল্লাহর তরফ থেকে ভালোবাসার নুর পয়দা হয়”
–বুখারী শরিফ।☆
★যে স্বামী তার স্ত্রীকে একবার চুমু
দিবে এবং যে স্ত্রী তার স্বামীকে একবার চুমু দিবে,
প্রতিটা চুমুর বিনিময়ে ১০০ টা নেকি তাদের আমলনামায় লিখা হয়।
—মুসনাদে আহমদ (স্বামী স্ত্রী অধ্যায়)☆
★ যে স্বামী তার স্ত্রীর নিকট গমন করে
এবং শারীরিক মিলনের আগে ২ রাকাত নামাজ পড়ে নেয় ও রাসুল সঃ এর সুন্নত মতো স্ত্রীর সাথে শারীরিক
মিলন করে তাদের প্রতিবার মিলনে একটি উট কুরবানি করার সওয়াব তাদের উভয়ের আমল নামায়
লিখা হয়।
–বায়হাকী ( স্বামী স্ত্রী ও পারিবারিক অধ্যায়)..☆
★যে স্বামী তার স্ত্রীকে কোরঅানের এলেম শিখাবে এবং নিজেও শিখবে এবং সে অনুযায়ী আমল করবে আল্লাহপাক মৃত্যুর পর তাদেরকে
জান্নাত দান করবেন।☆
★ যে সন্তান তার পিতামাতার
ভরণ পোষন করবে বা সেবা করবে এবং নিজ স্ত্রীর ইজ্জতের হেফাজত করবে তাদের জীবনের সমস্ত
গুনাহ মাফ করে দেওয়া হবে।
— মুসলিম শরীফ।☆
★ যে স্ত্রী তার স্বামীর অনুমতি ছাড়া সেবা করবে সে স্ত্রীর নিজের শরীরের ওজনের সমান সোনা ছদকা দান করার সওয়াব তার আমল নামায় প্রতিদিন লিখা হয় ৷ আর যে স্বামী তার স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া তার সেবা করবে সে স্বামীর শরীরের ওজনের সমান সোনা দান করার সওয়াব তার আমল নামায় লিখা হয়।
– আবু দাউদ শরীফ☆
★ যে স্বামী স্ত্রী উভয়ে একে অপরের দিকে তাকিয়ে মিষ্টি হাসি দিবে,
তাদের প্রতিটা হাসিতে তাদের আমলনামায় ১০ টা করে
নেকি দেওয়া হয়।
— আবু দাউদ☆
★যে স্বামী বাহিরে যাওয়ার সময় তার স্ত্রী ও সন্তানদেরকে সালাম করে বাসা থেকে বের হয় এবং যখন বাহির থেকে এসে আবার সালাম করে অথবা স্বামী বাসায় আসলে বা বাহিরে যাওয়ার
সময় স্ত্রী তার স্বামীকে সালাম করে সে ঘরে কখনো শয়তান প্রবেশ করতে পারেনা এবং সব সময় রহমত ও বরকত নাজিল হতে থাকে,
কখনো ঝগড়া বিবাদ হবে না সে ঘরে।
– আবু দাউদ,তিরমিজি।☆
★যখন কোন পুরুষ বিয়ের সময় তার স্ত্রীকে কালেমা পড়ে কবুল বলে দোয়া করলো তখন সেই সময় হতে মৃত্যু পর্যন্ত তাদের আমলনামায় সওয়াব লিখা হয়।
–মুসলিম।☆
পরবর্তি পোষ্টগুলো পড়তে চাইলে আমার আইডি ফলো ফাষ্ট করে রাখুন অথবা ফ্রেন্ড রিকুয়েষ্ট দিয়ে বন্ধুত্বের তালিকায় যুক্ত করুন।তাহলে আমার দেয়া প্রতিটা পোষ্ট আপনার কাছে অটোমেটিক ভাবে পৌছে যাবে
হে আল্লাহ্ “সারা পৃথিবী জুড়ে প্রতিটি মুসলিম পরিবারকে এভাবে কবুল করুন। (আমিন)

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন