ভারতীয়রা পাকিস্তানিদের কাছে ক্ষমা চাইত

সদ্য করোনা ভাইরাসের (COVID-19) কবল থেকে মুক্তি পেয়েছেন। আর মুক্তি পেয়েই ‘বাজে বকা’ শুরু করলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক শাহিদ আফ্রিদি (Shahid Afridi)। তাঁর দাবি, তিনি ভারতের বিরুদ্ধে খেলার সময় এমনভাবে মারতেন (পড়ুন শট খেলতেন) যে শেষে ভারতীয়রা তাঁর কাছে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হত।

শনিবার একটি সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন পাক অলরাউন্ডার বলেছেন,”আমি সবসময় ভারত এবং অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে খেলাটা উপভোগ করতাম। আসলে দুটোই বড় দল। ওদের বিরুদ্ধে ভাল খেলার চাপ বেশি থাকে। ওদের বিরুদ্ধে ভাল খেলার মজাই আলাদা। আমার মনে হয় ভারতের বিরুদ্ধে আমি ভালই খেলেছি। ওদের বেশ ভালই ‘মেরেছি’। এত মেরেছি যে ম্যাচের শেষে এসে ক্ষমা চাইত।” বস্তুত ভারতের বিরদ্ধে আফ্রিফির রেকর্ড অন্য দেশের তুলনায় ভাল। টিম ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে প্রাক্তন পাক অধিনায়ক ৬৭টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৫২৪ রান করেছেন। আটটি টেস্টে তাঁর সংগ্রহ ৭০৯ রান। ভারতের বিরুদ্ধে মোটামুটি ভাল পারফর্ম করলেও, তেমন আহামরি কিছু করেননি আফ্রিদি। আর তাঁর এই ক্ষমা চাওয়ার দাবিটিরও কোনও প্রমাণ নেই। স্বাভাবিকভাবেই এই ‘ভিত্তিহীন’ দাবির জন্য প্রাক্তন পাক অধিনায়কের উপর বেজায় চটেছেন নেটিজেনরা।

উল্লেখ্য, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে এখনও পর্যন্ত ক্রিকেটের তিনটি ফরম্যাট মিলিয়ে খেলা হয়েছে ১৯৯টি ম্যাচ। এর মধ্যে ভারত জিতেছে ৭০টি। পাকিস্তান জিতেছে ৮৬টি। মোট ৫৯টি টেস্টের মধ্যে ভারত জিতেছে ৯টি। পাকিস্তান ১২টি। ১৩২টি ওয়ানডে ম্যাচের মধ্যে ভারতের দখলে গিয়েছে ৫৫টি। পাকিস্তান জিতেছে ৭৩টি। টি-টোয়েন্টিতে অবশ্য পাকিস্তানের থেকে অনেকটা এগিয়ে ভারত। আটটি ম্যাচের মধ্যে ভারতই জিতেছে ৬টি। পাকিস্তান মাত্র একটি। সার্বিকভাবে পাক দল ভারতের থেকে এগিয়ে থাকলেও সাম্প্রতিক অতীতে পাকিস্তানের তুলনায় অনেক ভাল পারফর্ম করেছে ভারতীয় দল। এমনকী আফ্রিদির অভিষেকের পরও পাকিস্তানের থেকে ভারতের রেকর্ড বেশি ভাল। তারপরও তিনি কীসের ভিত্তিতে ‘খুব’ মারের দাবি করছেন, তা বোঝা দুর্বিষহ।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন