মুসলিম ধর্ম প্রচারককে ইতালির হাতে তুলে দিচ্ছে নরওয়ে

নাজুমুদ্দিন ফরাজ আহমেদ নামে এক মুসলিম ধর্ম প্রচারক ইরাকি কুর্দিকে ইতালির হাতে তুলে দিতে যাচ্ছে নরওয়ে।

বুধবার দেশটির সরকার এ সিদ্ধান্ত নেয়। জঙ্গি কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ইতালির একটি আদালত নাজুমুদ্দিনকে অভিযুক্ত করার পর থেকে তাকে হস্তান্তরের জন্য চাপ দিয়ে যাচ্ছিল ইতালি। খবর এএফপির।

নাজুমুদ্দিন ফরাজ আহমেদ নরওয়েতে মোল্লা ক্রেকার নামেও পরিচিত। ৬৩ বছরের এ ইমামকে তার অনুপস্থিতিতে ইতালির একটি আদালত জিহাদি নেটওয়ার্কে জড়িত থাকার অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করে ১২ বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেন।

এ রায় ঘোষণার পরই ২০১৯ সালের জুলাই মাসে নরওয়ে সরকার এই ইমামকে গ্রেফতার করে। ১৯৯১ সাল থেকে তিনি নরওয়েতে শরণার্থী হিসেবে বসবাস করছেন।

তাকে হস্তান্তরের জন্য বেশ কয়েকবার অনুরোধের পর নরওয়ে শেষ পর্যন্ত রাজি হয়েছে বলে জানান দেশটির বিচারমন্ত্রী মনিকা মেইল্যান্ড।

এদিকে নাজুমুদ্দিন ফরাজের আইনজীবী ব্রায়াজার মেইং বলেছেন, নরওয়ের এ সিদ্ধান্ত একটি ভুল সিদ্ধান্ত। এটি একটি মানবতা পরিপন্থী কাজ, যা ইউরোপের মানবাধিকারের সঙ্গে যায় না।

তিনি আরও বলেন, তার মক্কেলের বিরুদ্ধে কোনো প্রমাণ দাঁড় করাতে পারেনি ইতালি। প্রয়োজনে তিনি ইউরোপীয় মানবাধিকার আদালতের দ্বারস্থ হবেন বলেও জানান।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন