লিভারে চর্বিসহ নানা সমস্যা থেকে বাঁচতে যেভাবে খাবেন তেঁতুল

লিভারে চর্বি বা ফ্যাটি লিভার বর্তমানে একটি খুব সাধারন সমস্যা। একটু বয়স বাড়তেই লিভারে চর্বি জমার  সমস্যা দেখা যায়। আর তখন অনেক সময় মুঠো মুঠো ওষুধ খেয়েও দেখা যায় কাজ হচ্ছে না।

তবে কিছু প্রাকৃতিক উপায়ও আছে যেমন: তেঁতুল, যা আপনাকে ভালো ফলাফল দিবে। যে কোন ধরনের লিভারের  সমস্যা থাকলে তেঁতুল সবচেয়ে বেশি উপকারি। এটি আমাদের শরীর থেকে ক্ষতিকর পদার্থ বের করে দেয় এবং হজম প্রক্রিয়াকে সঠিক রাখে। এছাড়াও  খারাপ কোলেস্টেরলও ধ্বংস করে আমাদের লিভার ফ্যাট ঠিক রাখে।

তেঁতুলের উপকারিতা:

  • শরীর থেকে ক্ষতিকর টক্সিন বের করতে সাহায্য করে  তেঁতুল।
  • তেঁতুলে  অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকায় এটি বুড়িয়ে যাওয়া ত্বককে রক্ষা করে।
  •  লিভারে জমা ফ্যাট গলাতে সাহায্য করে তেঁতুল।
  • তেঁতুলে থাকা লয়াক্সেটিভ কোষ্ঠকাঠ্যিন্যের সমস্যা দূর করে।
  •  তেঁতুল নারী ও পুরুষের ক্ষেত্রে অনেক যৌন সমস্যাও দূর করে।
  • হৃদরোগের যাবতীয় সমস্যা দূর করে এই তেঁতুল।
  • কোলন ক্যান্সারের মতো রোগ থেকেও রেহাই দেয় তেঁতুল।

রোগমুক্তিতে যেভাবে খাবেন তেঁতুল:

কিছুটা খোসা ছাড়ানো তেঁতুলের(৩-৪টি তেঁতুলের বিঁচি) সঙ্গে জল মিশিয়ে নিন ১৫০-২০০ মিলি বা ৩/৪ গ্লাস পরিমাণ। মিশ্রনটি ভাল ভাবে তৈরি হয়ে গেলে সেটি ছেকে নিন। এরপর তাতে ১-১ .৫ চামচ মধু মিশিয়ে নিন। এভাবে তেঁতুলের সরবত বানিয়ে সকাল ও বিকালবেলায় পান করুন। বেশি তেঁতুল খাওয়াও শরীরের জন্য ক্ষতিকর তাই তেঁতুল কখনোই প্রয়োজনের অধিক খাবেন না। দিনে ১টি তেঁতুল দিয়েই ২বার সরবত বানিয়ে খাওয়া উত্তম। তবে খুব অতিরিক্ত ফ্যাট হলে দিনে সর্বোচ্চ ২টি তেঁতুল খাওয়া যেতে পারে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password